• শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
১৬

আম্পান মোকাবেলায় মাঠে ১৯৩৩ মেডিকেল টিম

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২০  

ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবেলায় স্বাস্থ্য খাতের ১৯৩৩টি মেডিকেল টিম কাজ করছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গঠিত স্বাস্থ্য মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক এবং স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন অনুবিভাগ) মো. হাবিবুর রহমান খান বুধবার দুপুরে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্য মিডিয়া সেল এটির আয়োজন করে। তিনি জানান, চট্টগ্রামে ১২১২টি, খুলনায় ৩০৩টি ও বরিশালে ৪১৮টি মেডিকেল টিম রয়েছে।

এই টিমগুলো আশ্রয় কেন্দ্রের ১৪ থেকে ২০ লাখ মানুষের ওষুধ সরবরাহসহ জরুরি স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে কাজ করবে। অপরদিকে ঢাকা শহর ও বাইরের সব মিলিয়ে বর্তমানে দেশে অন্তত ১১০টির মতো কোভিড-১৯ ডেডিকেটেড হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ব্রিফিংকালে সেলের আহ্বায়ক বর্তমান সমসাময়িক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সর্বাধিক আলোচিত বিষয়গুলো তুলে ধরেন। তিনি জানান, তামাক ও তামাক শিল্প খাত সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা সংক্রান্ত কিছু সংবাদ প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ায় পরিবেশন হচ্ছে। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কোভিড-১৯ উপলক্ষে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কিছু নির্দেশনা ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের কিছু নির্দেশনার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে কিছু সুপারিশ করেছে।

প্লাজমা থেরাপি ও আমেরিকার ওষুধ রেমডিসিভির বিষয়ে হাবিবুর রহমান জানান, প্লাজমা থেরাপি বর্তমানে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর্যায়ে রয়েছে। প্রাথমিকভাবে এই থেরাপি ৪৫ জনের দেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করা হবে। আর রেমডিসিভির ওষুধ দেশে উৎপাদন শুরু করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেক্সিমকো ফার্মা মন্ত্রণালয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাতে কিছু রেমডিসিভির ওষুধ দেবে বলেও জানান তিনি। হাবিবুর রহমান বলেন, বর্তমানে ঢাকায় ১৪টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল কোভিড-১৯ হিসেবে ডেডিকেটেড করা হয়েছে। এর পাশাপাশি বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে ২ হাজার শয্যার ডেডিকেটেড অস্থায়ী হাসপাতালটিও এখন আমাদের হাতে নেয়া হয়েছে। ঢাকা শহর ও বাইরের সব মিলিয়ে বর্তমানে দেশে অন্তত ১১০টির মতো কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধানের সঞ্চালনায় ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ব স্বাস্থ্য) ও মিডিয়া সেলের সদস্য রীনা পারভীন, যুগ্মসচিব (জনস্বাস্থ্য) ও মিডিয়া সেলের সদস্য নিলুফার নাজনীন, এইচআর শাখার উপসচিব ও মিডিয়া সেলের সদস্য মো. ছরোয়ার হোসেন, সিস্টেম অ্যানালিস্ট ও মিডিয়া সেলের সদস্য আহমেদ লতিফুল হোসেন।

আম্ফান মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের : ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্য অধিদফতরের নন কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল প্রোগ্রাম ও হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনাল প্লানের মাধ্যমে এসব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (কন্ট্রোল রুম) ডা. আয়শা আক্তার। তিনি জানান, সব স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। আবহাওয়া অধিদফতর ঘোষিত সতর্ক বার্তা অনুসরণ করে উপকূলীয় অঞ্চলে স্বাস্থ্যকর্মীদের মাধ্যমে স্বাস্থ্য বার্তা প্রচার চলমান রয়েছে। প্রয়োজনীয় ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী সংগ্রহ করে বাফার স্টক (দুর্যোগকালীন ওষুধ) সয়ংসম্পূর্ণ রাখা হয়েছে। যা উঁচু স্থানে স্থানান্তর করে মজুদ করা হচ্ছে। দুর্যোগকালীন সব ছুটি বাতিল করে স্থানীয় পর্যায়ে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছে। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা চালু রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
আঞ্চলিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর