• বুধবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪২৬

  • || ০২ রজব ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
সর্বশেষ:
ট্রেনে ট্রাভেল ব্যাগ থেকে চুইয়ে পড়ছিল রক্ত! গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে বরখাস্ত পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু
১৭৯০

ইশরাকের জয়ে বড় বাঁধা মির্জা আব্বাস : সন্দেহ কর্মীদের

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০২০  


ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আগামীকাল। এই নির্বাচনে বিএনপির পক্ষ থেকে ঢাকা দক্ষিণে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার পুত্র ইশরাক হোসেন। রাজনীতিতে প্রায় অচেনা হলেও সাদেক হোসেন খোকার ইমেজের কারণে এবার নির্বাচনী প্রচারণায় জমিয়ে ফেলেছেন ইশরাক হোসেন।

এই তরুণের প্রতি বিএনপির নেতাকর্মীরা আকৃষ্ট হয়েছেন। তারা মনে করছেন, ভবিষ্যতে ঢাকার জন্য বিএনপি একজন নেতা পেল। কিন্তু এই নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত ইশরাক হোসেন কি করবেন তা নিয়ে বিএনপির মধ্যেই সংশয় রয়েছে। আর এই সংশয়ের প্রধান কারণ হলো বিএনপির হেভিওয়েট নেতা মির্জা আব্বাস। 

সাদেক হোসেন খোকা আর মির্জা আব্বাসের দৌরাত্ম অনেক পুরনো। দুজনেই পালাক্রমে ঢাকার মেয়র ছিলেন। প্রথম দফায় মির্জা আব্বাসকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল বিএনপি থেকে। কিন্তু চুরানব্বই সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র মোহাম্মদ হানিফের কাছে শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়েছিলেন। এরপরই মির্জা আব্বাসের শুধু মেয়র অধ্যায়ের অবসানই হয়নি, বরং বিএনপিতে ঢাকার নিয়ন্ত্রণও তিনি হারাতে শুরু করেন। 

তার সঙ্গে সাদেক হোসেন খোকার রাজনৈতিক বিরোধের কথা অজানা নয়। এবার নির্বাচনে দেখা গেছে যে, প্রয়াত প্রতিদ্বন্দ্বির পুত্রের সঙ্গে প্রায় সারাক্ষণই ছিলেন মির্জা আব্বাস। শুধু মির্জা আব্বাস নন, তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাসও ইশরাক হোসেনের প্রচারণায় দিন রাত পরিশ্রম করেছেন। কিন্তু ঘরের শত্রু বিভীষণ বলে কথা। শেষ পর্যন্ত মির্জা আব্বাস তার অনুগতদের কি নির্দেশ দেবেন এবং শেষ পর্যন্ত ভোটের নেপথ্যের খেলায় তিনি কি করবেন সেটা নিয়ে অনেকে চিন্তিত। ইশরাক হোসেনের ঘনিষ্ঠরাও মির্জা আব্বাসের সিদ্ধান্ত শেষ পর্যন্ত কি হবে তা নিয়ে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন এবং চিন্তিত। কারণ আর যাই হোক মির্জা আব্বাস খোকা পরিবারকে রাজনীতিতে পুনর্বাসন করতে দেবেন কিনা তা নিয়ে বিএনপির মধ্যেই সন্দেহ রয়েছে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর