• শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
১২৮

করোনা মোকাবেলায় সারাদেশে সশস্ত্র বাহিনী কাজ করছে

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৩১ মার্চ ২০২০  

করোনা প্রতিরোধে হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত ও সাধারণ মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধি এবং চিকিৎসা সেবায় সারাদেশে কাজ করছেন সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন তারা। দেশের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে জীবাণুনাশক মিশ্রিত পানি ছিটিয়েছে সেনাবাহিনী। বিতরণ করছেন ত্রাণ সামগ্রী। সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা মাঠ পর্যায়ে কাজ করায় সাধারণ মানুষের মনে বিরাজ করছে স্বস্তি। মাঠ পর্যায়ে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তা করে চলেছে সশস্ত্র বাহিনী। 

খুলনা ও সাতক্ষীরা জেলায় সেনাটহল অব্যহত রয়েছে। তারা সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছেন। একই সাথে দু:স্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছেন। মানুষকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে উদ্বুদ্ধ করছেন। এ দুই জেলার উপকূলীয় এলাকাগুলোতে নৌবাহিনীর সদস্যরা কাজ করছেন। 

চট্টগ্রাম নগরীতে কেমিক্যাল মিশ্রিত জীবাণুনাশক পানি ছিটানো শুরু করেছে সেনাবাহিনী। বিভিন্ন গাড়ি ও ট্রাকে করে শহরের প্রধান সড়কের পাশাপাশি মেডিকেল এবং ক্লিনিক পাড়াসহ পাঁচলাইশের সড়ক, প্রবর্তক মোড়ে পানি ছিটানো হয়। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের পাশাপাশি এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর টহল টিম লিডার মেজর শফিক।
কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ায় ‘হোম কোয়ারান্টাইন’ নিশ্চিতে মাঠে নেমেছে নৌবাহিনী। মাইকিং করে সচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হচ্ছে। দ্বীপ উপজেলা হওয়ায় এখানে বিশেষভাবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে হাসপাতাল, জানিয়েছেন কনিটিনজেন্ট কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আশিকুর রহমান।
বিভাগীয় শহর রংপুর নগরীর পায়রা চত্বর, জাহাজ কোম্পানী মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় টহল দিচ্ছেন সেনা সদস্যরা। করোনা সংক্রমণ রোধে সামাজিক দুরত্ব মেনে চলতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন তারা।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হোম কোয়ারেন্টাইন ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। খাগড়াছড়ি, শরীয়তপুর, টাঙ্গাইল ও পিরোজপুরেও জীবানুনাশক পানি ছিটানোসহ বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে সেনাবাহিনী। 


পিরোজপুর এর কাউখালী ও নেছারাবাদ উপজেলার শহর এবং এর আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় জীবানুনাশনক স্প্রে ও প্রচারণা চালিয়েছে সেনাবাহিনী। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাইরে অবস্থান না করার জন্য মাইকের মাধ্যমে আহ্বান জানানো হচ্ছে। 
বাগেরহাটে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে টহল দিয়েছে সেনাবাহিনী। এছাড়াও সেনা সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে  মাইকিং করছেন। নৌবাহিনীর সদস্যরা বাগেরহাট উপকূলীয় এলঅকায় ত্রাণ বিতরণসহ করোনা প্রতিরোধে সার্বিতভাবে কাজ করছেন। 
শেরপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলায় উপজেলায় টহল দিচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। 


মাদারীপুরে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। উপজেলাগুলোর বিভিন্ন হাটবাজারে সেনা সদস্যদের টহল দিতে দেখা যায়। এ সময় তারা অপ্রয়োজনে বাইরে চলাফেরা করছে এমন মানুষদের মাইকিং করে সতর্ক করেন। 
করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় সারাদেশের মতো ফেনীতেও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০টি টহল টিম নিয়োজিত রয়েছে। ফেনীর বিভিন্ন সড়কে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো ও  মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, সাবান ও লিফলেট বিতরণ করছেন তারা।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর