• রোববার   ০৭ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৪ ১৪২৭

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
৫৩

করোনা সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে প্রয়োজন সম্মিলিত প্রচেষ্টা : তামিম

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২০  

করোনার ফলে সৃষ্ট বিপর্যয়ে অসহায় ও দুস্থদের জন্য নিজের সর্বোচ্চটা করছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে তামিম ইকবাল। বেতনের অর্ধেক টাকা দিয়ে দিয়েছেন। ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাহায্য করেছেন অ্যাথলেট সামিউলকে। ক্রিকেটার নাজমুল ইসলাম অপুর ত্রাণ কার্যক্রমে তিন দফা আর্থিক সাহায্য করেছেন। স্বেচ্ছাসেবিকা নাফিসা খানের ত্রাণ কার্যক্রমেও অনুদান দিয়েছেন। এরপর দেশের ৯১ ক্রীড়াবিদকে দিয়েছেন আর্থিক সহায়তা।

তবে তামিম মনে করেন, তিনি একাই এমনটা করছেন তা নয়। আরও অনেকে ইতিমধ্যে এগিয়ে এসেছেন সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে। নিজের ফেসবুক পেইজ থেকে লাইভে এসে এমন কথা বলেন তামিম। বাংলাদেশের সেরা এই ওপেনার বলেন, ‘অমি একা নই। আরও অনেকে সাহায্য-সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।’

এরপর আরও যোগ করেন, ‘আমরা সবাই যদি কম বেশি একে অপরের পাশে এসে দাঁড়াই তাহলে দেখবেন, ক্রাইসিস থাকবে না। আর আমরা যদি একজন আরেকজনের পাশে না দাঁড়াই। নিজেদের কথা ভাবি, তাহলে এমন ক্রাইসিস ছয় মাস পর্যন্ত টেনে নেওয়া সম্ভব।’

তামিম মনে করেন সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টাই পারে সব সমস্যার সমাধান করতে। এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আসলে দরকার সম্মিলিত প্রচেষ্টা। সবাই একটু একটু করে সহযোগিতার হাত বাড়ালেই দেখবেন আর কোন সমস্যা থাকবে না।’

তামিম জানিয়েছেন, তাঁর পরিচিত অনেকেই এখন এমন বিপদের মুহূর্তে মানুষের জন্য নিজেদের সাধ্যমত করে যাচ্ছেন। তামিমের বিশ্বাস এই সঙ্কটকালে সবাই যদি নিজের খাবার শেয়ার করে তাহলে বাকীদের খাবারের কষ্ট কেটে যাবে। এই ওয়ানডে অধিনায়কের ভাষ্যে,

‘এখন এমন এক পরিস্থিতি বিরাজ করছে, যাতে আসলে সম্মিলিত প্রচেষ্টাই দরকার। আমি অনেককে চিনি, জানি। যারা স্পোর্টসেরই মানুষ। আবার তার বাইরেও অনেকে আছেন, যারা কষ্টে থাকা অসহায় মানুষদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং সাধ্যমত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এখন যে সঙ্কটকাল চলছে, সবাই মিলে কাজ করলে এই সঙ্কট আর থাকবে না। আমরা যদি নিজেদের খাবার শেয়ার করি, তাহলে আর কারো খাবারের কষ্ট হবে না।’

এদিকে লাইভে তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, ৯১ ক্রীড়াবিদের পাশে যে দাঁড়িয়েছেন। এই পরিকল্পনা কিভাবে তাঁর মাথায় আসলো? এ নিয়ে খুব একটা বেশি কিছু বলতে না চাইলেও তামিম নিজের উত্তরে বলেন, আমি যখন অ্যাথলেট সামিউলের সাথে কথা বললাম, তখনই মাথায় এসেছিল। যদিও এখন আসলে এ বিষয়ে তেমন কথা বলতে চাই না। আশা করি আমার উপহার দিয়ে যদি কারো একটা মাস চলে যায়, তাহলে ভাল লাগবে।’

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর