• শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
৪৫

চট্টগ্রামে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছে ছাত্রলীগ

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২০  

তীব্র রোদ, ভাপসা গরম আবার কখনো বৃষ্টি। এমন প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেই চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় কৃষকের সঙ্গে মাঠে নেমে পড়েছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

কৃষকদের সঙ্গে মাঠ থেকে চাষ করা ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছেন তারা। কেন্দ্রীয় নির্দেশনায় চট্টগ্রাম নগরীর বাইরে জেলার উত্তর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ স্বেচ্ছায় মাঠে নেমে এক কাতারে কৃষকের কাজে সহায়তা করছে। মাঠের সব ধান ঘরে না তোলা পর্যন্ত ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মাঠে থাকবেন বলে ছাত্রলীগ নেতারা জানিয়েছেন।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু জানান, চট্টগ্রামের রাউজান, রাঙ্গুনিয়া, ফটিকছড়ি, হাটহাজারী, মিরসরাই, সীতাকুণ্ডসহ সব উপজেলাতেই ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা কৃষকের পাশে রয়েছেন। কেন্দ্রীয় নির্দেশনায় স্বপ্রণোদিত হয়ে মাঠের ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা।

কোথাও ধান কাটার সমস্যার কথা জানালেই ছাত্রলীগ কৃষকের সঙ্গে মাঠে নামছে। এখনো চট্টগ্রামের সব কৃষিজমির ধান কাটার উপযোগী হয়নি বলে উল্লেখ করে এই ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ‘যেই জমির ধান কাটার উপযোগী হবে, জানালেই সঙ্গে সঙ্গেই সেখানে ছাত্রলীগ এগিয়ে আসবে। চট্টগ্রাম উত্তর জেলার প্রতিটি উপজেলাতেই এই কার্যক্রম চলবে।’

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার গুমাই বিলের কৃষক আবদুল জাব্বার জানান, তিনি বিলের ৫ কানি জমিতে ধান চাষ করেছেন। ধান কাটার সময় হয়েছে কিন্তু তা কাটার জন্য শ্রমিক পাচ্ছিলেন না। এই অবস্থায় রাঙ্গুনিয়ার সাংসদ ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের নির্দেশনায় দ্রুত মাঠে নেমে সব ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। একইভাবে গুমাই বিলের কৃষক মান্নান, আমিনুর রহমানসহ আরো অনেকে জানিয়েছেন তাদের জমির ধান কাটতে এগিয়ে এসেছে ছাত্রলীগ।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহের বলেন, ‘আমরা দক্ষিণ জেলার সব উপজেলায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মাঠে নেমেছি। জেলার সাতকানিয়া, লোহাগাড়া, পটিয়া, বোয়ালখালী, বাঁশখালী, চন্দনাইশ, দোহাজারীসহ সব এলাকায় কৃষকদের সঙ্গে নিয়ে মাঠের ধান কাটছে ছাত্রলীগকর্মীরা। প্রতিটি কৃষকের ধান পুরোপুরি ঘরে না উঠা পর্যন্ত মাঠে থাকবে ছাত্রলীগ। ধান কেটে দেয়ার পাশাপাশি কৃষকরা যে কোন সমস্যার কথা জানালে ছাত্রলীগ এগিয়ে এসে তা কেটে ঘরে তুলে দিবে।’

এদিকে, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত কচি জানান, চট্টগ্রাম মহানগরীতে তেমন কৃষিজমি নেই। তারপরও নগরীর আশেপাশের কোথাও কোনো কৃষক যদি ধান বা অন্য কোনো চাষাবাদ করেন এবং ছাত্রলীগকে যদি সহায়তার জন্য খবর দেন তবে তাৎক্ষণিকভাবে ছাত্রলীগ তাদের পাশে দাঁড়াবে। মাঠের ফসল কেটে ঘরে তুলে দিতে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করবে ছাত্রলীগের প্রতিটি কর্মী।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর