• শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৭

  • || ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক গোপালগঞ্জ
১৩৭

ফুলকপি এর ভেষজ উপকারিতা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০২০  

ফুলকপি আমাদের অতি পরিচিত শীতকালীন একটি সবজি । পাতা দিয়ে ঘিরে থাকা অংশটি ফুলের মত বলেই এর নাম ফুলকপি । যার বৈঞ্জনিক নাম ব্রাসিকা অলেরাসিয়া ।

ফুলকপির ফুল অর্থাৎ সাদা অংশটুকু বেশি খাওয়া হলেও এর চারপাশের ঘিরে থাকা ডাটা ও পাতা দিয়ে তৈরী হয় সব্জি ভাজি ও স্যুপের মতই খাবার ।

ফুলের মত অংশটুকু শুধু শুধু সাদা হয় না , কমলা সবুজ হলুদ বেগুনি রঙের ফুলকপি ও জন্মায় বিশ্বজুড়ে । ফুলকপির রয়েছে অজস্র গুনাগুন ।

ফুলকপির গুনাগুনের কথা সর্ব্প্রথম পাওয়া যায় ১২০০-১৩০০ শতকে আরব বিজ্ঞানী ইবনে আল আওয়াল এবং ইবনে আল বাইতির লেখায় ।

আসুন জেনে রাখি ফুলকপি এর কয়েকটি উপকারিতা সম্পর্কে

ফুলকপির  উপকারিতা

ওজন কমাতে:

এক কাপ সিদ্ধ ফুলকপিতে রয়েছে প্রায় ৫৫ গ্রাম ভিটামিন সি । ফ্যাট বার্ণ্ করতে বা চর্বি পোড়াতে এক কার্য্করী উপাদান । এছাড়াও রয়েছে ফোলেট যা ওজন কমাতে যাদুর মত কাজ করে । এক কাপ ফুলকপিতে মাত্র ৩০ কিলোক্যালরি শর্করা থাকে । তাই পেট ভরানো কিংবা খিদে মেটানোর জন্য খেয়ে ফেলা যায় নিশ্চিন্তেই ।

আলসার ও ক্যান্সারের ঝুকি কমায়ঃ

এতে রয়েছে গ্লুকোরাফিন, যা পাকস্থলির ঝিল্লি রক্ষা ছাড়াও পাকস্থলিতে হ্যালোব্যাকটার পাইলোরি নামক ব্যাকটেরিয়াকে জন্মাতে দেয়না । এছাড়া পাকস্থলির আলসার ও ক্যান্সারের ঝুকি ও কমিয়ে দেয় ।

ক্ষত নিরাময়েঃ

ফুলকপিতে রয়েছে জিংক যা নতুন কোষ সৃষ্টি করে ক্ষত নিরাময়ে সাহায্য করে ।

দাঁতকে মজবুত করেঃ

নিয়মিত ফুলকপি ভক্ষন হাড়, দাঁতকে মজবুত রাখার পাশাপাশি স্নায়ুকে সচল রাখে ।

রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করেঃ

এটি খাদ্য তালিকায় ভিটামিত কে এর চাহিদা পুরণ করতে পারে । যা ক্ষতস্থানে রক্ত জমাট বাঁধার অত্যন্ত প্রয়োজনীয় উপাদান ।

ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুকি কমায়ঃ

ফুলকপিতে আছে ক্যারোটিনয়েডস এবং ফাইটোহরমোন যা এন্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখবার পাশাপাশি ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুকি কমায় ।

গর্ভাবস্থায় ফুলকপিঃ

গর্ভাবস্থায় ফুলকপি খাওয়া অত্যন্ত ভালো অভ্যাস । এর পুষ্টি উপাদান ও ভিটামিনসমূহ কোষের বৃদ্ধিতে সহায়ক । এটি মাতৃগর্ভে ভ্রুনের বৃদ্ধিকে ত্বরানিত করে ।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ

ফুলকপির সেলেনিয়াম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় পাশাপাশি ক্রনিক ইনফেকশন কমাতে ও এটি কার্যকরী । এটি সোডিয়ামের ও উৎস, যা রক্তের সঠিক ঘনমাত্রা বজায় রাখে ।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর