• শনিবার   ২৮ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৪ ১৪২৬

  • || ০৩ শা'বান ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
সর্বশেষ:
নিম্নবিত্তদের খাবার পৌঁছে দেবে ডিএনসিসি করোনা গুজব ঠেকাতে টিভি মনিটরিং করবে তথ্য মন্ত্রণালয় আগামী জুন পর্যন্ত সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্থগিত : আইসিসি গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত ৫, সর্বমোট ৪৪ জন চট্টগ্রামেই তৈরি হচ্ছে পিপিই হবিগঞ্জে বাস খাদে পড়ে আহত ২০
১১৩

বঙ্গবন্ধু বিপিএল : সিলেট থান্ডারকে হারালো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯  

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার দিনের প্রথম ম্যাচে যে উইকেটে রানের বন্যা বইয়ে দিয়েছে রাজশাহী রয়্যালস ও খুলনা টাইগার্স, সেই একই উইকেটে পরের ম্যাচে রানের জন্য সংগ্রাম করল সিলেট থান্ডার ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। যেখানে আগের ম্যাচে শোয়েব মালিক, মুশফিকুর রহিমরা ঝড় তুলেছিলেন; সেখানে সিলেট-চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানদের দেখে মনে হলো, ব্যাটিং করা কত কঠিন! লো স্কোরিং ম্যাচে শেষ দিকে অবশ্য কিছুটা ঝড় উঠেছিল নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটে। তাতে সিলেটের করা ১২৯ রান টপকে চট্টগ্রাম ম্যাচ জিতেছে ৪ উইকেটে, দুই ওভার বাকি থাকতে।

ঘরের মাঠে চট্টগ্রামের শুরুটা হলো জয় দিয়েই। সব মিলিয়ে চার ম্যাচে এটি তাদের তৃতীয় জয়, ৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। আর সিলেট হারল প্রথম চার ম্যাচেই!

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই রনি তালুকদারের উইকেট হারায় সিলেট। এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারিয়েছে তারা। প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের মধ্যে দুই অঙ্কে যেতে পারেন শুধু আন্দ্রে ফ্লেচার (৩৮) ও মোহাম্মদ মিথুন (১৫)।

৬৯ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর তারা একশ ত্রিশের কাছে যেতে পারে মূলত মোসাদ্দেক হোসেনের ৩০ রানের সুবাদে। ২২ বলে ২ চারে ইনিংসটি সাজান সিলেট অধিনায়ক।

দারুণ বোলিংয়ে চার ওভারে মাত্র ২৩ রানে ৪ উইকেট নেন চট্টগ্রামের পেসার রানা। ম্যাচসেরার পুরস্কারটা উঠে তার হাতেই।  রুবেল হোসেন ২৮ রানে নেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট নেন মুক্তার আলী ও কেশরিক উইলিয়ামস। লক্ষ্য তাড়ায় চট্টগ্রামও উইকেট হারিয়েছে শুরু থেকেই। আভিস্কা ফার্নান্দো, ইমরুল কায়েস, মাহমুদউল্লাহ, চাঁদউইক ওয়ালটন; দুই অঙ্কে যেতে পারেননি কেউই। সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মাঝে এক প্রান্ত আগলে রেখেছিলেন লেন্ডল সিমন্স। পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি রান আউটে কাটা পড়েন ব্যক্তিগত ৪৪ রানে। ৩৭ বলে সমান ৩টি করে চার ও ছক্কায় ইনিংসটি সাজান ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান।

শেষ ছয় ওভারে জয়ের জন্য চট্টগ্রামের দরকার ছিল ৪৫ রান। উইলিয়ামসকে সঙ্গে নিয়ে দুই ওভার বাকি থাকতেই চট্টগ্রামকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন সোহান। ২৪ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ১৭ রানে অপরাজিত ছিলেন উইলিয়ামস।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর