• বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
৬৪৮

বেলি ফুলের সাজে

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৮ জুন ২০১৯  

বেলি। দুই অক্ষরেই প্রকাশিত ভালো লাগার মিষ্টি অনুভূতি। আকারে ছোট হলেও এই ফুলের আকর্ষণটা বড়ই মধুর। কবিতায়-গানে বেলি এসেছে এর সৌরভ নিয়েই। বৃষ্টির এই মৌসুমে চুলের সাজেও যেন একক রাজত্ব বেলির। আষাঢ়ের দিনগুলোতে চুলে একগোছা বেলি সৌন্দর্য আর স্নিগ্ধতা বাড়িয়ে দেয় অনেকটাই।

বেলি ফুলের সুগন্ধ আমাদের জীবনেও নিয়ে আসে সৌন্দর্য। বিছানার পাশে কিংবা বসার ঘরে একমুঠো বেলি এনে দেয় সতেজতা। কৃত্রিম এয়ারফ্রেশনার এ সময় নস্যি। বৃষ্টিভেজা সোঁদা মাটি আর বেলি ফুলের সুগন্ধ দুটো মিলেই মাতোয়ারা করে রাখে মন। রাস্তার মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে এখন বেলি ফুল বিক্রেতারা। খেয়ালে-বেখায়ালে কেনা হয়ে যায় দেখলেই। হাতে কিংবা হাত খোঁপায় পেঁচিয়ে নিলেন। অনেকক্ষণ যে সতেজ থাকে তা কিন্তু নয়। এ কারণে কদরও বেশি। তবে যেটুকু সময় থাকে, শতকরা ১০০ ভাগ বিলিয়ে দেয় নিজেকে। কার্পণ্য করে না এতটুকু।খোঁপাভরা বেলি ফুল—শাড়ির সঙ্গে বেশি প্রচলিত চুলের সাজ। গয়না: গ্লুড টুগেদারখোঁপাভরা বেলি ফুল—শাড়ির সঙ্গে বেশি প্রচলিত চুলের সাজ। গয়না: গ্লুড টুগেদারচুলের সাজে

 

চুল সাজাতে এই ফুলের ওপরে আর কিছু নেই। রং, গন্ধ, আকার সবকিছুই একদম মানানসই চুল সাজানোর জন্য, এমনটাই মনে করেন রূপবিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমিন। চাইলে কলি দিয়েও ছোট আকারে চুলে আটকে নেওয়া যায়। আবার বেশ বড় আকার তৈরি করেও চুল বাঁধা যায়। সৌন্দর্যচর্চা কেন্দ্রে চুল বাঁধার জায়গায় উঁকি মারলেই দেখা যায় বিয়ের কনেরা বেলি ফুল হাতে নিয়ে অপেক্ষায়। খোলা চুল, খোঁপা কিংবা বেণি যেকোনো চুলের সাজেই স্নিগ্ধতা এনে দেয়, যা এ ফুলের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। চোখ আর মনের প্রশান্তি—সে তো বাড়তি পাওনা।

সাধারণ হাতখোঁপার চারপাশে জড়িয়ে নিলেই বদলে যায় খোঁপার চেহারা। পুরো খোঁপা যেমন ঢেকে দেওয়া যায়, তেমনি শুধু খোঁপার ওপরে বা নিচেও লাগানো যায়। খোলা চুলে হ্যাডব্যান্ডের মতো করে পরলে রাজরানির শুভ্র মুকুটই মনে হবে। চুল টুইস্ট করেও নানাভাবে লাগানো যায়। সব পোশাকের সঙ্গেই পরা যাবে। শুধু একটু বুঝে নিতে হবে কোন পোশাকে কীভাবে পরবেন, বলেন তানজিমা শারমিন।হেডব্যান্ডের সঙ্গে বেলি ফুল লাগিয়ে নিলেই চলে আসবে মুকুটের ভাব। পোশাক: টুয়েলভহেডব্যান্ডের সঙ্গে বেলি ফুল লাগিয়ে নিলেই চলে আসবে মুকুটের ভাব। পোশাক: টুয়েলভমন ভালো করে দেয়

বেলি ফুলের গন্ধ আর রূপ, দুটোই অপরূপ। নাকে ঘ্রাণ গেলেই মস্তিষ্কে খবর চলে যায়। ইতিবাচক হরমোন নিঃসৃত হয়। এর ফলে মন ভালো হয়ে যায়, জানালেন রূপ বিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা। আমাদের জীবনে প্রতিদিনের চাপ কমাতে এই সাদা ফুলের গন্ধই যেন আসল খেলা দেখায়। গোসলের সময় বাথটাব বা বালতিতে ছড়িয়ে দিন কিছু বেলি ফুল। পানিতেও যেন মিশে যাবে এর সুগন্ধ। গাড়িতে দুটো ফুল রেখে দিন। যাত্রার ক্লান্তি কমে যায় অনেকাংশে। রাহিমা সুলতানা জানালেন ত্বকের বয়স কমিয়ে রাখতেও এর জুড়ি নেই। এর জন্য বেলি ফুলের সঙ্গে কাঠবাদাম আর দুধ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিতে হবে। ত্বকে মেখে কিছুক্ষণ রেখে মুখ ধুয়ে ফেলুন। বেলি ফুলের মধ্যে থাকা এসেনশিয়াল তেলও ভালো রাখে ত্বকের কোষকে। 

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর