• শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
৪০

রোজায় ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখবে যেসব খাবার

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২০  

বর্তমানে ডায়াবেটিসে সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। অতিরিক্ত কাজের চাপ, স্ট্রেস, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস, অনিয়মিন জীবনযাত্রাই আমাদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার কারণ। 

প্রতি ১০০ জন মানুষের প্রায় ৫০ শতাংশই এখন ডায়াবেটিস রোগে ভুগে থাকেন। তবে এটি কোনো মারাত্মক রোগ নয়। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে এবং নিয়মিত চিকিৎসায় ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এছাড়াও ব্যায়াম এবং নির্ধারিত ওষুধের পাশাপাশি একটি স্বাস্থ্যকর ডায়েট আপনাকে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করতে পারে। 

চিকিৎসকরা ডায়াবেটিস রোগীদের শুরুতেই খাদ্যাভাসে পরিবর্তন আনার পরামর্শ দেন। বিশেষ করে রোজার সময়। সারাদিন রোজা রাখার পর অনেকেই ইফতারে বা সেহরিতে ভাজা পোড়া খাবার খেয়ে ফেলেন। তাই ইফতার এবং সেহরির খাবারের তালিকায় এমন সব খাবার রাখা উচিত যা রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবে। হয়তো ভাবছেন কোন খাবারগুলো খাবেন? 

মাছ

অনেকেই তেলওয়ালা মাছ খেতে চান না। ভাবেন এতে ওজন বেড়ে গিয়ে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে না। এটি একদমই ভুল ধারণা। মাছে রয়েছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। যা শরীর ও হার্ট সুস্থ রাখতে খুবই প্রয়োজন। এছাড়াও মাছের তেলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন। ডায়াবেটিস রোগীদের যারা হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন। তাদের অবশ্য নিয়মিত মাছ খাওয়া উচিত। এজন্য আপনি তেলওয়ালা মাছ বা সামুদ্রিক মাছ খেতে পারেন।

ডিম

ডিমকে বলা হয় পুষ্টির পাওয়ার হাউজ। বিজ্ঞানীরা বলেছেন, যারা টাইপ ২ ডায়াবেটিসে ভুগছেন। তাদের উচ্চ প্রোটিনযুক্ত খাদ্যের অংশ হিসেবে প্রতিদিন দুটি ডিম খাওয়া উচিত। এতে তাদের কোলেস্টেরল এবং রক্তে শর্করার মাত্রায় উন্নতি হয়।

দই

ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ এই খাবারটি কেবলমাত্র গরমে শরীরকে শীতল রাখতে সহায়তা করে না। এতে থাকা প্রোবায়োটিক রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করতেও সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে, দইতে থাকা প্রোটিন ওজন হ্রাস এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের শরীরের গঠনকে ঠিক রাখে।

ডাল 

গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত শিম, মটর এবং মসুর ডাল খায়। তাদের টাইপ ২ ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। এটি ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা পরিচালনা করতে সহায়তা করে।

স্ট্রবেরি

জানেন কি? স্ট্রবেরি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য কতটা উপকারী? এই ফলে অ্যান্থোসায়ানিনস নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যা খাওয়ার পরে কোলেস্টেরল এবং ইনসুলিনের মাত্রা অনেকটাই কমে। কানাডার টরেন্টোর সেন্ট মাইকেল হাসপাতাল দ্বারা পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে, স্ট্রবেরি টাইপ ২ ডায়াবেটিসের রক্তে শর্করার এবং হৃদরোগের ঝুঁকির কারণগুলো কমাতে পারে।  

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর