• রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪২৭

  • || ১৬ রজব ১৪৪২

দৈনিক গোপালগঞ্জ

সড়কে বিনিয়োগে আগ্রহী বিশ্বব্যাংক

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২১  

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্র্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছিল বিশ্বব্যাংক। বর্তমানে সড়ক খাতে বিনিয়োগে বেশ আগ্রহ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট প্রকল্পে বিমানবন্দর থেকে মহাখালী পর্যন্ত প্রাথমিকভাবে অর্থায়নেরও প্রস্তাব দেয়। এবার সড়কের চারটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ইতোমধ্যে যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়ক প্রকল্পে অর্থায়নের প্রস্তাবটি অনুমোদন করেছে সরকার।

নতুন করে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের চারটি খাতে বিনিয়োগের প্রস্তাব করেছে বিশ্বব্যাংক। এর মধ্যে প্রথমেই রয়েছে ওয়েস্টার্ন ইকোনমিক করিডর। সংক্ষেপে একে বলে উইকেয়ার। তিন বছরের মধ্যে যশোর, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া অঞ্চলে ইকোনমিক করিডর করতে প্রস্তাব দিয়েছে দাতা সংস্থাটি। ‘উইকেয়ার’-এর বর্তমান অবস্থা বিশেষ করে ভূমি অধিগ্রহণ, নির্মাণকাজ, ডিজাইন রিভিউ ও সেফগার্ড পরামর্শকের ব্যপারে তারা আলোচনায় বসতে চাইছে। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক যোগাযোগ বিবিআইএনের নতুন আঞ্চলিক কানেকটিভিটিতেও পরিবহন যোগাযোগে ভূমিকা রাখতে চায় বিশ্বব্যাংক। বিবিআইএন মানে- বাংলাদেশ, ভুটান, নেপাল ও ভারত। এ চার দেশের মধ্যে সরাসরি পণ্য ও যাত্রী পরিবহনের কথা থাকলেও এখনো বাস্তবে রূপ পায়নি। এ নিয়ে মতদ্বৈতের কারণে পিছিয়ে রয়েছে উদ্যোগটি। এমন বাস্তবতায় বিশ্বব্যাংক পাশে থাকতে চাইছে। তারা ভারত ও নেপালের পরিবহন সচিবের সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনার বিষয়টিও জানিয়েছে। এ ছাড়া সড়ক খাতে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারত্বে (পিপিপি) বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের কারিগরি সহায়তা দিতেও আগ্রহ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) এ সংক্রান্ত

কার্যক্রমে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) মাধ্যমে সহায়তা দিতে চায় তারা। শুধু তা-ই নয়, চলতি বছরের জুনের আগ পর্যন্ত সড়ক নিরাপত্তায় কী কী প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে বা নেওয়ার টার্গেট আছে, তা জানতে চেয়েছে। এসব উন্নয়ন প্রকল্পেও আগ্রহ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। এজন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিবের কাছে চিঠি দিয়েছে বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ট্রান্সপোর্ট গ্লোবাল প্রাকটিস ম্যানেজার। বিশ্বব্যাংকের এ চিঠির পর ইতোমধ্যে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে বৈঠক হয়েছে। উন্নয়ন প্রকল্পের প্রস্তাবনার বিষয়ে পর্যালোচনা করছে সড়ক মন্ত্রণালয়।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ