• সোমবার   ১৪ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

  • || ০৪ জ্বিলকদ ১৪৪২

দৈনিক গোপালগঞ্জ

১ জুলাই থেকে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত ঢাবির

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ মে ২০২১  

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আগামী ১ জুলাই থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ফাইনাল/বার্ষিক পরীক্ষাসহ সব চূড়ান্ত পরীক্ষা অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে আজ বৃহস্পতিবার একাডেমিক কাউন্সিলের ভার্চুয়াল সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে প্রচলিত নিয়মে সশরীরে পরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হবে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একাডেমিক কাউন্সিলের সভার সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানানো হয়েছে।

সভায় কৌশলগত কারণে প্রতিটি কোর্সকে একাধিক ভাগে ভাগ করে বিভিন্ন ধরন/ পদ্ধতিতে পরীক্ষা (যেমন: বর্ণনামূলক সংক্ষিপ্ত আকারে, এমসিকিউ, কুইজ, এসাইনমেন্ট এবং ওপেনবুক পরীক্ষা) নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পরীক্ষার সময় ও পূর্ণমান কমানো হবে, তবে মূল্যায়নকৃত ফলাফলকে প্রচলিত পূর্ণমানে রূপান্তর করে চূড়ান্ত ফলাফল তৈরি করা হবে। ক্রেডিট অপরিবর্তিত থাকবে। এছাড়া, কম্পিউটারভিত্তিক ব্যবহারিক পরীক্ষাসমূহ অনলাইনে নেয়া হবে। অন্যান্য ল্যাব-ভিত্তিক ব্যবহারিক পরীক্ষা যথাযথ নিয়মে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে গ্রহণ করা হবে। 

গতকাল বুধবার দুপুরে অনলাইনে পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হওয়া ডিনস কমিটির এক জরুরি বৈঠকে অনলাইন পরীক্ষার প্রস্তাব করা হয়। 

বৈঠক শেষে উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ডিনস কমিটির সভায় অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার জন্য প্রত্যেক অনুষদের ডিনকে স্ব স্ব অনুষদের প্রয়োজন অনুসারে নীতিমালা তৈরি করতে বলা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি না হলে ১ জুলাই থেকে শুরু আমরা অনলাইনে পরীক্ষা নেব। অনলাইন পরীক্ষার গ্রহণযোগ্যতা ও পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ কীভাবে নিশ্চিত করা যায়, তা সুনির্দিষ্ট করতে অনুষদগুলোর ডিন ও ইনস্টিটিউটগুলোর পরিচালকদের একটি কৌশলপত্র তৈরির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে৷ দুই সপ্তাহের মধ্যে এই কৌশলপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে৷ পাশাপাশি অনলাইন পরীক্ষার দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে শিক্ষকদেরও প্রশিক্ষণ দেয়া হবে৷ পরীক্ষায় অংশ নিতে শিক্ষার্থীরা অনলাইনেই ফরম পূরণ করতে পারবেন বলে জানান তিনি। 

অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অনুষদের ডিনবৃন্দ ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকগণ অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য নিজ নিজ একাডেমিক ঘরানার পরীক্ষা ও প্রশ্নের ধরণ নির্ধারণ করে একটি গাইডলাইন তৈরি করবেন। তারা আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে এই গাইডলাইন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা)- এর নিকট প্রেরণ করবেন। 

সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইনস্টিটিউটের পরিচালকবৃন্দসহ একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যবৃন্দ সংযুক্ত ছিলেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ