• বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪২৭

  • || ২৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

দৈনিক গোপালগঞ্জ
৭৬

৭২ পরিবারকে ঈদ উপহার ও খাদ্য দিল ছাত্রলীগ কর্মীরা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২০  

করোনা মহামারির মাঝে নতুন আতঙ্কের নাম ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’। মহামারীর মধ্যে এ ঝড় দেশের মানুষকে ভীত করে তুলেছে। এমন অবস্থায় গোপালগঞ্জ জেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রাম এবং গোপালগঞ্জ পৌরসভার ৭২টি পরিবারকে ঈদ উপহার এবং দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় শুকনো খাবার দিয়েছেন ছাত্রলীগের ঢাবি শাখা এবং জেলা ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হল শাখা ছাত্রলীগ কর্মী সাদিক হাসান মিয়া, মাস্টার দা সূর্যসেন হলের ফয়সাল মোল্লা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কর্মী ইমন শেখ এবং গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ কর্মী মেহেদি হাসান অর্থ সংগ্রহ করে এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন।

পৌঁছে দেওয়া উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিলো, ৬ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি পোলাও চাল, ২ প্যাকেট সেমাই, ১ কেজি চিনি, ১০০ গ্রাম দুধ ও ২ প্যাকেট সাবান।

জানা যায়, এর আগেও করোনা মহামারির শুরুতে এই ছাত্রলীগ কর্মীরাই নিজ এলাকায় সচেতনাতার উদ্দেশ্যে মাস্ক, সাবান, লিফলেট বিতরণ সহ ২১টি পরিবারকে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন।

এমন উদ্যোগের বিষয়ে সাদিক হাসান বলেন, ঈদুল ফিতরের বাকি আর মাত্র ৪ দিন। করোনাভাইরাস এর আক্রমণে জর্জরিত দেশ। এর মাঝেই বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় হানা দিচ্ছে "ঘূর্ণিঝড় আম্ফান"। এমতাবস্থায় আমাদের চারপাশের কর্মহীন মানুষেরা উভয় সংকটে পড়েছে। আমরা কিছু ছাত্রলীগ কর্মী ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে তাদের পাশে সামান্য ঈদ উপহার এবং ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী সময়ের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু শুকনো খাবার নিয়ে দাঁড়িয়েছি। আমরা রাতের আঁধারে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই উপহার পৌঁছে দিয়েছি।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার দা সূর্যসেন হলের আরেক ছাত্রলীগ কর্মী ফয়সাল মোল্লা বলেন, ঈদ উপলক্ষে এবং ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের কথা চিন্তা করে আমরা এ উদ্যোগ নিয়েছি। ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় এ উদ্যোগ এবং সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান ছাত্রলীগের এই কর্মী। এসময় তিনি করোনা এবং ঝড় মোকাবিলায় সমাজের বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ
গোপালগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর