• শনিবার   ২৩ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৮ ১৪২৮

  • || ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

এখানে নিজেকে বারবার প্রমাণ করতে হয়: মম

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

টিভি নাটকের বাইরে অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মমকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছে ‘স্ফুলিঙ্গ’ সিনেমায়। এছাড়াও তিনি প্রশংসিত হন ‘মহানগর’ ওয়েব সিরিজে। সম্প্রতি নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলেন ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ খ্যাত এ নায়িকা।

ছবির নাম ‘ওরা ৭ জন’। এটি পরিচালনা করবেন ‘জাগো’-খ্যাত নির্মাতা খিজির হায়াত খান। মুক্তিযুদ্ধের ৭ জন বীরশ্রেষ্ঠকে নিয়ে নির্মিত এই সিনেমায় বীরশ্রেষ্ঠদের ভূমিকায় দেখা যাবে ইন্তেখাব দিনার, ইমতিয়াজ বর্ষণ, সাইফ খান, নাফিস আহমেদ, খালিদ মাহবুব তূর্য, শাহরিয়ার ফেরদৌস সজীব ও খিজির হায়াত খানকে।

জাকিয়া বারী মম বলেন, ‘এর আগে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কোনো গল্পে আমার কাজ করা হয়নি, এটাই প্রথম কাজ হতে যাচ্ছে। মূলধারার চলচ্চিত্রে এরকম গল্প এবং আমার যে চরিত্র; সেটা আমার বেশ পছন্দ হয়েছে। দেশের পঞ্চাশতম জন্মবার্ষিকীতে এরকম একটা গল্পের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমার বেশ ভালো লাগছে। সামনের মাস থেকেই আমি শুটিংয়ে অংশ নেবো এবং টানা ৩০ দিনের মত কাজ করবো।’

‘ওরা ৭ জন’ সিনেমার শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভিন্নভাবে অবদান রাখা মেয়েদের মধ্যে প্রধান চরিত্রে থাকবেন মম। তার চরিত্রের নাম অপর্ণা সেন।

এখন নাটকে নিয়মিত দেখা যায়না মমকে। সেইসাথে অনেক দর্শকই ‘অপূর্ব-মম’ জুটিকে বেশ মিস করেন, এমনটা দেখা যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন পোস্টে। এ বিষয়ে মম’র জবাব, ‘আমি তো এখন নাটকে কম কাজ করি। কাজ করি না বললেই চলে। আর ‘অপূর্ব-মম’ জুটিকে দর্শকরা বেশ পছন্দ করে এজন্য হয়তো তারা মিস করে। সামনে কোনো ভালো কাজ আসলে অবশ্যই সেই জুটিকে তারা দেখতে পাবেন।’কাজের সংখ্যা হঠাৎ করে কমিয়ে দেওয়ার কারণ কি? মম’র উত্তর, ‘এটার আসলে তেমন বিশেষ কোনো কারণ নেই। আমি খুবই সিলেক্টিভ কাজ করছি। ভালো গল্প এবং পরিচালক পেলে তাহলে সেটা করছি, নাহলে করছি না। যে পরিচালকের সঙ্গে আমি কমফোর্টলি কাজ করতে পারি এবং আমাকে ফোকাস করবে; এমন কিছুর জন্য আমি সবসময়ই অপেক্ষা করি।’

তার ভাষ্য, ‘এখানে আমি ‘ফোকাস’ বলতে শুধু একটা শব্দ বোঝাতে চাই না। আমি এটা বলতে চাই যে, যে পরিচালক তার গল্পের প্রতি যত্নবান হবেন এবং সেই গল্পের প্রতিটা চরিত্রের প্রতি যত্নবান হবেন; সেই গল্পটাই কিন্তু একটু ভালো প্রজেক্ট হয়, দর্শকদেরও বেশি লাগে। আমি ওই ধরণের কাজের সঙ্গেই যুক্ত থাকতে চাই।

সময়েরও কিন্তু ব্যাপার থাকে। যখনই কেউ কাজ করে সেই সময়টাতেই কিন্তু নিজেকে বারবার প্রমাণ করতে হয়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সার্ভাইবাল এবং ব্যালেন্স করেই চলতে হয়, নাহলে তো থেমে যেতে হবে। আগে কি করেছি এবং ভবিষ্যতে কি করবো সেটা নিয়ে আমি ভাবিনা। আমি এখন কি করতে পারছি, কতটুকু প্রমাণ করতে পারছি, শুধু সেটাই ভাবি।’

প্রায় দেড় দশকের ক্যারিয়ারে জাকিয়া বারী মম কাজ করেছেন নানামাত্রিক চরিত্রে। সংখ্যার ভীড়ে হারিয়ে না গিয়ে মানের দিকেই গুরুত্ব দিয়ে এসেছেন প্রতিনিয়ত। যার কারণে সময়ের সঙ্গে তাল না মিলাতে পেরে অনেকে হারিয়ে গেলেও তিনি এখনো স্থির রয়েছেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ