ব্রেকিং:
করোনায় সারাদেশে আরও ৯ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ২৭৫ খোলা বাজারে ডলারের মূল্য ৯০ টাকা ছাড়ালো স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ১০
  • সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১০ ১৪২৮

  • || ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

দেশে দ্রুত ভ্যাকসিন তৈরি হবে, সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১  

বাংলাদেশে অতি দ্রুত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি হবে বলে সংসদে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ইতোমধ্যে দেশে আড়াই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আইন প্রণয়নের সময় দেওয়া বক্তব্যে এসব কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদ সদস্যদের উপস্থাপিত বিভিন্ন অভিযোগ ও প্রশ্নের উত্তর দেন। সংসদ অধিবেশনে সমালোচনার জন্য সংসদ সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমি সমালোচনা পছন্দ করি। কারণ এটা আমাকে শক্তিশালী করে। এই সমালোচনা অবশ্যই সঠিক হতে হবে।

জাহিদ মালেক স্বপন বলেন, আমরা শুধু ভ্যাকসিন আনছি না, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করা। সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। অতি দ্রুত দেশে ভ্যাকসিন তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে আড়াই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। দেড় কোটি মানুষকে ডাবল ডোজ করে টিকা দেওয়া হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, চীন থেকে ৬ কোটি ডোজ টিকার নিশ্চয়তা পাওয়ার পর দেখলাম, এই টিকা আনতে দুই থেকে তিন হাজার কোটি টাকা দরকার। আমি প্রধানমন্ত্রীকে বললাম, আমরা ৬ কোটি ডোজ টিকা আনতে পারি। কিন্তু এই পরিমাণ টাকা লাগবে। প্রধানমন্ত্রী বললেন টাকা যত লাগুক টিকা নিয়ে আসো। আমরা কোভ্যাক্স থেকে ৫ কোটি টিকা পাবো। সব মিলিয়ে ১৬ কোটি ভ্যাকসিনের অর্ডার আছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার যে উন্নতি হয়েছে, হাসপাতালের সার্ভিস ক্ষমতার যে উন্নতি হয়েছে, করোনার সময় সেটা বোঝা গেছে। কেউ চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যায়নি, যেতে পারেনি। দেশে মানুষ চিকিৎসা নিয়েছেন। কোভিড, নন কোভিড, ডেঙ্গু সব চিকিৎসাই দেশে হয়েছে। আমরা ১২০টি সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপন করেছি। করোনার চিকিৎসা ভালো হয়েছে বলেই আজ মৃত্যুর সংখ্যা ৩৫-এ নেমেছে। যেখানে অ্যামেরিকায় এখন দেড় হাজার মানুষ করোনায় মারা যাচ্ছে, ভারতে মারা যাচ্ছে।

বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির জন্য বাড়তি টাকা নেওয়া হচ্ছে—সংসদ সদস্যদের এই অভিযোগের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রাইভেট মেডিক্যাল কলেজে আঠোরো লাখ টাকা ধরে দেওয়া আছে। কেউ এর বেশি নিলে সেটা আমাদের অবহিত করলে ব্যবস্থা নেবো।

তিনি বলেন, এখানে প্রতিটি জেলায় মেডিক্যাল কলেজ করা হবে কিনা সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেই অনুযায়ী প্রতিটি জেলায় মেডিক্যাল কলেজ করা হবে। ইতোমধ্যে ৩৮টি মেডিক্যাল কলেজের তিনি অনুমোদন দিয়েছেন।

চিকিৎসকদের রাজনীতি করা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডাক্তারদের অ্যাসোসিয়েশন আছে। রাজনীতি সবাই করতে পারেন, ইঞ্জনিয়াররা রাজনীতি করতে পারেন, ডাক্তারা রাজনীতি করলে দোষ দেখি না। বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বলি আপনারাও ড্যাব করেন, রাজনীতি করেন। করোনার সময় স্বাস্থ্য সার্ভিস ভালো ছিল। এর সুফলটাও মানুষ পেয়েছে। বেসরকারি হাসপতালে চিকিৎসার চার্জ বেশি। আমরা কথা বলেছি যাতে তারা চার্জ কমায়।

সংসদ সদস্যদের স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম দুনীতির সমালোচনা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভ্যাকসিন হিরো, সাউথ-সাউথ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। কাজ না করলে পুরস্কার পাওয়া যায় না।

বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের সমালোচনার জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা অনেক এনার্জি নিয়ে এসেছেন, চালিয়ে যাচ্ছেন, চালিয়ে যান। আমিও চালিয়ে যাবো, আমিও প্রস্তুতি নিয়ে এসেছি। সমুদ্রের মধ্যে দুই বালতি ময়লা পানি ফেললে সমুদ্রের পানি নষ্ট হয় না। এখানে বলা হয়েছে ৩৮ লাখ টাকায় পর্দা কেনা হয়েছে। এটা আমার জানা নেই। সঠিক তথ্য দিয়ে কথা বলবেন। এই তথ্য সঠিক নয়, ৩৮ লাখ টাকা দিয়ে পর্দা কেনা হয়নি। এটা নিয়ে কথা উঠেছিল। দেশে ৩৮টি মেডিক্যাল কলেজ হয়েছে, বিএনপির সময় একটাও হয়নি। তিন হাজার টাকা করে একটি টিকা কেনা হয়েছে বলে যে অভিযোগ করা হয়েছে সেই তথ্য সঠিক নয়।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ