• বুধবার ২৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

  • || ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

বাইডেন-ট্রাম্পের প্রতি যে আহ্বান জানালেন মিট রমনি

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

যুক্তরাষ্ট্রে আগামী বছর নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এরই মধ্যে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা ঘোষণা করেছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি প্রাথমিক পর্যায়ের প্রস্তুতিও চলছে।

কিন্তু এমন সময়ে এসে নতুন প্রজন্মের কাছে রাজনীতি ছেড়ে দিতে বাইডেন ও ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সিনেটর ও সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী মিট রমনি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, মিট রমনি অবসরে যাওয়া নিয়ে নিজের পরিকল্পনার বিষয়ে মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার সময় এই আহ্বান জানান। 

সিনেটর রমনি বলেছেন, তিনি আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতার সিদ্ধান্ত নেননি। কারণ রাজনীতি নতুন প্রজন্মের নেতাদের হাতে ছেড়ে দিতে হবে। 

প্রসঙ্গত, মিট রমনির বয়স এখন ৭৬ বছর। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস রাজ্যের গভর্নরসহ যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে ২০ বছর ধরে সক্রিয় রয়েছেন। বিগত কয়েক বছরে রিপাবলিকান দলের এই প্রথম সারির নেতা প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা করেছেন। মিট রমনি ২০২৫ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত সিনেট সদস্য আছেন। এর পর তিনি আর নির্বাচন করবেন না বলে জানিয়েছেন। 

খবরে বলা হয়েছে, বুধবার বিকেলে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে বলেছেন, এখন বয়স হয়েছে। বয়সই তাকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। 

রমনি বলেন, আরও এক দফা যদি নির্বাচন করে নির্বাচিত হই তাহলে আমার বয়স হবে আশির কোটার মাঝামাঝি। খোলামনে বলছি, এটা হলো নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বের সময়। তবে নির্বাচনে লড়াই করব না বলেই আমি লড়াই থেকে সরে যাব না।
 
পরে প্রবীণ এ রাজনীতিক সাংবাদিকদের বলেন, তিনি চান রিপাবলিকান দলে আরও যুব শ্রেণির মানুষ যুক্ত হোন। তারা অফিস চালান। ভোট করুন। তরুণ প্রজন্মকে স্থান দিলে যুক্তরাষ্ট্রের দুটি দলই ভাল করবে। 

বিবিসির এক প্রশ্নের জবাবে মিট রমনি বলেন, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ট্রাম্প যদি সরে দাঁড়ান তাহলে এটা হবে নতুন প্রজন্মের জন্য বড় একটি বিষয়। এখন বাইডেনের বয়স ৮০ বছর। ট্রাম্পের ৭৭। তারাই এখন পর্যন্ত ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে যথাক্রমে ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকানের ফ্রন্টরানার। 

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে মিট রমনিকে প্রেসিডেন্ট পদে মনোনীত করেছিল রিপাবলিকান পার্টি। তবে তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে হেরে যান। এর ৬ বছর পর তিনি ইউটাহ রাজ্যের দুটি সিনেট আসনের একটিতে নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালেও তিনি প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন পাওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। 

২০২০ সালে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসিত করা হয়। সে সময় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছিলেন তিনি। অর্থাৎ মিট রমনিই একমাত্র রিপাবলিকান, যিনি দলের বিরুদ্ধে গিয়ে ভোট দিয়েছিলেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ