ব্রেকিং:
চলন্ত ট্রেনের ছাদে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে নিহত ২
  • শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৮

  • || ১৬ সফর ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

চুল ও ত্বকের যত্নে কাঁঠালের বীজ ব্যবহারের নিয়ম

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০২১  

কাঁঠাল খেতে সবাই কমবেশি পছন্দ করেন। এতে অনেক পুষ্টিগুণ আছে। তবে জানেন কি? কাঁঠালের বীজেও আছে অনেক উপকার। কাঁঠাল খাওয়ার পর এর বীজ অনেকেই সংরক্ষণ করে থাকেন। কাঁঠালের বীজ দিয়ে অনেক সুস্বাদু খাবার তৈরি করা যায়।

তবে কাঁঠালের বীজ দিয়ে রূপচর্চা করা যায় এ বিষয়টি জানেন কি! শরীর সুস্থ রাখতে যেমন খাওয়া যায় এর বীজ; ঠিক তেমনই ত্বক আর চুলের যত্নেও একে কাজে লাগানো যেতে পারে।

ত্বকের যত্নে কাঁঠালের বীজ

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে এই বীজ। কাঁঠালের বীজে আছে ভিটামিন এ এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। ভিটামিন এ সিবাম নিঃসৃত করে ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে। এভাবে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি পায়।

কাঁঠালের বীজে আরও আছে ফ্ল্যাভোনয়েড, স্যাপোনিন ও ফেনোলিকসের মতো শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। ফেনোলিকস ত্বককে ফ্রি র‌্যাডিকেলের প্রভাব থেকে নক্ষা করে। ফ্রি র‌্যাডিকেল ত্বকের কোষের ক্ষতি করে। এর ফরে ত্বকে পড়ে বয়সের ছাপ।

ফ্ল্যাভোনয়েডও একই কাজ করে। আর স্যাপোনিন খুব ভালো মানের প্রাকৃতিক ক্লিনজার। এটি ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করে।

বলিরেখা দূর করতে কাঁঠালের বীজের পেস্টের ২ চামচ নিন। এর সঙ্গে এক টেবিল চামচ দুধ এবং দুই চামচ মধু মেশালেই তৈরি হয়ে যাবে অ্যান্টি-রিংকেল ফেস মাস্ক।

মুখে ব্যবহার করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করে কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ২ দিন ব্যবহারেই বলিরেখা কমে আসবে, আর ত্বক হবে আরও উজ্জ্বল।

চুলের যত্নে কাঁঠালের বীজ

চুল পড়া থেকে শুরু করে খুশকি, শুষ্ক চুলের সমস্যা করে কাঁঠালের বীজ। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, প্রোটিন, আয়রন। সব উপাদানগুলোই চুলের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

এ ছাড়াও চুলের গোড়া মজবুত করে চুল পড়া বন্ধ হয় এতে থাকা প্রোটিনের কারণে। চুলের ফলিকল প্রোটিন দিয়েই তৈরি। ফলিকলের ক্ষতির জন্য চুল পড়া বাড়ে।

ভিটামিন এ মাথার ত্বকের গ্রন্থিকে সিবাম নামে তৈলাক্ত পদার্থ তৈরির কাজে সাহায্য করে। সিবাম মাথার ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে। শরীরের কোষের বৃদ্ধির জন্য ভিটামিন এ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়াও এতে থাকা আয়রন মাথার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে তোলে।

কাঁঠালের বীজে আরও আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এটি চুলের ফলিকলকে ফ্রি র‌্যাডিকেল থেকে রক্ষা করে। এই ফ্রি র‌্যাডিকেল চুলের ক্ষতিগ্রস্ততা বাড়িয়ে তোলে।

চুলের বিভিন্ন সমস্যা সমাদানে কাঁঠালের বীজের হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য খোসা ছাড়িয়ে কাঁঠালের বীজ ঘণ্টাখানেক পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এরপর দুধে ভিজিয়ে নরম করে নিন।

দুধসহ কাঁঠালের বীজ ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করে হেয়ার প্যাক হিসেবে চুলে ও স্ক্যাল্পে ব্যবহার করুন। আধা ঘণ্টা রেখে হালকা গরম পানি এবং মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দু’দিন এই হেয়ার প্যাক ব্যবহারেই ব্যবহারে চুল পড়া কমবে।

সূত্র: স্টাইলক্রেজ

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ