• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

ডেল্টা প্ল্যানের অন্যতম লক্ষ্য পরিবেশরক্ষা ও উন্নয়ন:প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২২  

বাংলাদেশের নদ-নদী ও ভূপ্রকৃতির কথা মাথায় রেখে অবকাঠামো নির্মাণের পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের ক্ষেত্রে নদীর গতিপথ সংকুচিত করা হয়নি।

রোববার (২২ মে) দুপুরে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিলের সভায় তিনি একথা বলেন। ব-দ্বীপ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সমুদ্র সম্পদ ব্যবহারের তাগিদ দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, পরিকল্পিতভাবে কাজ করতে পারলে অনেক কঠিন কাজও সম্পন্ন করা যায়।

সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নানা প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে গড়ে উঠছে বড় বড় অবকাঠামো। শিল্পায়নে আসছে নতুন মাত্রা। অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে বাংলাদেশের নাম এখন প্রতিষ্ঠিত। এদিকে সুনীল অর্থনীতি বাস্তবায়নে কাজও শুরু হয়েছে। ব-দ্বীপ অঞ্চল হিসাবে বাংলাদেশের শতবর্ষের পরিকল্পনা ‘ডেল্টা প্ল্যান’ বাস্তবায়নের কাজও শুরু হয়েছে। সেই উদ্দেশ্যে গঠিত হয়েছে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে রোববার দুপুরে এর প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় তিনি বলেন, ব-দ্বীপটাকে রক্ষা করা এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে একটি উন্নত জীবন দেয়াকে আমি মনে করি, সবচেয়ে বড় প্রয়োজন। পরিকল্পিতভাবে কাজ করলে কঠিন কাজও ভালোভাবে সম্পন্ন করা যায়।

প্রধানমন্ত্রী জানান, ২১০০ সালের কথা মাথায় রেখে মানুষের উন্নত জীবন নিশ্চিত করতে নেয়া হয়েছে নানা পরিকল্পনা। নদীমাতৃক বাংলাদেশের ভূপ্রকৃতি মাথায় রেখে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এ সময় পদ্মাসেতুর প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, নদী বাঁচিয়ে সেতু সড়ক নির্মাণ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, পদ্মা সেতুর নির্মাণের সময় কিন্তু ব্রিজকে ছোট করতে দেইনি। সেখানে নদী যতটা চওড়া সেটা মাথায় রেখে, বাফার জোন রেখেই সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। এ কারণে এই সেতু সবচেয়ে দীর্ঘ হয়েছে।

ব-দ্বীপ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গত বছর ১২ সদস্যের ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠিত হয়। আর এর নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ