• সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৪ ১৪২৯

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

জরিমানা না করে ১০ দিনের খাদ্য সামগ্রী দিলেন টুঙ্গিপাড়ার ইউএনও

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০২১  

লকডাউনে তারা রেখেছেন দোকান খোলা অথচ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ব্যতিক্রমী উদ্যোগে জরিমানার বদলে পেলেন ১০ দিনের উপহার খাদ্য সামগ্রী।

শনিবার (২৫ জুলাই) রাতে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার লকডাউনের নজরদারিতে বের হন উপজেলা নির্বাহি অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) দিদারুল ইসলাম। এ সময় উপজেলার বিভিন্ন মোড়ে চায়ের দোকান খোলা দেখে জরিমানা না করে নির্বাহী অফিসার সেগুলো বন্ধ করে দেন এবং দোকান মালিকদের হাতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ১০ দিনের খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে চাল, তেল, ডাল, চিনি ও লবণ।

দোকানদার ওলিউল্লাহ বলেন, পেটের জ্বালায় দোকান খুলতে হয়। সপ্তাহে কিস্তি আছে ২টা, দোকান না খুললে  কিভাবে কিস্তি দেবো? সরকার খাবার দেওয়ায় তবুও খাবারের চিন্তা তো গেল।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম হেদায়েতুল ইসলাম নবধারা কে  বলেন, লকডাউনের কারণে সমস্ত দোকানপাট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। কিন্তু তারপরও বিভিন্ন স্থানে চায়ের দোকান খোলা রাখায় তাদের কে জরিমানা না করে আমরা দোকান বন্ধ করে দেই। এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উপহার ১০ দিনের খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী করোনার প্রভাবে টুঙ্গিপাড়ার কর্মহীন মানুষের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়ার নির্দেশ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। খাদ্যসামগ্রী পেয়ে চায়ের দোকানদাররা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ