• মঙ্গলবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১২ ১৪২৮

  • || ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

তদারকির অভাবে পশ্চিম রেলে বেহাল দশা, ঘটছে দুর্ঘটনা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯  

তদারকির অভাবে চরম বেহাল দশা পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে। তড়িঘড়ি করে চলছে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু মেরামতের কাজ। সপ্তাহে দুদিন সরেজমিনে ঘুরে রেলওয়ে ট্র্যাকের প্রতিবেদন দেওয়ার কথা রয়েছে প্রকৌশলীদের। 

তবে পরিদর্শনের সেই নিয়ম পালন হচ্ছে কাগজে-কলমেই। এর ওপর দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের নড়বড়ে ‘রেলট্র্যাক’ (লাইন) ক্রমেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। ফলে হরহামেশায় ঘটছে লাইনচ্যুতির ঘটনা। আর একই কারণে গতি আসছে না ট্রেন চলাচলেও।

এ রুটে প্রায় লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটলেও ট্র্যাক মেরামতে যথাযথ পদক্ষেপ নেয় না রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এতে কিছুদিন পরপরই ট্রেন লাইনচ্যুতির ঘটনা ঘটে। 

সরেজমিন এ রেল রুটের হরিয়ান স্টেশনের কাছে গিয়ে দেখা যায়, লাইনের ভগ্নদশা। সেখানে সমান্তরাল তিনটি লাইনের মধ্যে তিন নম্বর লাইনটি চলাচলের অনুপযোগী হওয়া সত্ত্বেও তা ব্যবহার করা হচ্ছে।

গত ১১ মার্চ রাতে রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীমুখী ‘মধুমতি এক্সপ্রেস’ নামের একটি ট্রেন রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনের অদূরে হরিয়ান স্টেশনের কাছে এসে হঠাৎ লাইনচ্যুত হয়।
অথচ দুর্ঘটনার দিন সেই লাইন দিয়েই চালানো হয় ট্রেনটি। সেই ট্র্যাকে গিয়ে দেখা যায় পুরাতন কাঠের স্লিপারগুলোকে সারিবদ্ধ করে ধরে রাখতে ৫৪ নম্বর রেলব্রিজের ওপর স্লিপারগুলোতে প্রযুক্তিগত পদ্ধতির বাইরে বাঁশের বাতা ব্যবহার করা হয়েছে। আর ৬৮০ মিটার সংস্কারাধীন দুই নম্বর লাইনটির মেরামত কাজ শেষ না হতেই তড়িঘড়ি করে উদ্বোধন করা হয়।

পবার হরিয়ান স্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, সেখানকার লাইনের দুইধারেই বিরাট গর্ত রয়েছে। নিরাপত্তা বেষ্টনী ছাড়ায় রেললাইনগুলো গড়ে উঠেছে। স্টেশনের তিনটি রেল লাইনের মধ্যে ২ নম্বর লাইনে মেরামতের কাজ করা হয়েছে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ