• সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৮

  • || ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

ফরিদপুরে পদ্মার ভাঙন হুমকিতে সড়ক-ফসলি জমি

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০২১  

ফরিদপুর সদর উপজেলার ডিক্রির চর ইউনিয়নে পদ্মা নদীতে হঠাৎ তীব্র নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি ও চলাচলের রাস্তা। ভাঙন হুমকিতে রয়েছে বিভিন্ন স্থাপনা।

ডিক্রির চর ইউনিয়নের ধলার মোড় থেকে পদ্মা নদীর পাড় হয়ে পূর্বে পালডাঙ্গী ও তাহের ফকিরের ডাঙ্গী গ্রামে প্রায় দেড় কিলোমিটারে এ ভাঙন চলছে।

ওই এলাকার বাসিন্দা জাহিদ প্রামাণিক নামে এক ব্যক্তি বলেন, ভাঙনের ফলে এ পর্যন্ত আনুমানিক ২২০ একর জমি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এছাড়া পালডাঙ্গীর সড়কটির অন্তত ৮০ ফুট নদীতে ভেঙে গেছে।

ওই এলাকায় মাজেদা বেগম মা ও শিশুকল্যাণ কেন্দ্র, মোতালেব হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়, মোতালেব হোসেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব চর টেপাখোলা উচ্চ বিদ্যালয়, পূর্ব নাড়ারটেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবস্থান। ওই এলাকায় পালডাঙ্গী, কাজের মাতুব্বরের ডাঙ্গী, ভূঁইয়া ডাঙ্গী, তাহের ফকিরের ডাঙ্গী, রহিমের ডাঙ্গী, হাজী ঈদুর ফকিরের ডাঙ্গীসহ বিভিন্ন গ্রামে চার হাজার মানুষের বসবাস। এ ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে তারা দুর্ভোগে পড়বে।

ওই এলাকার একাধিক বাসিন্দা বলেন, জরুরি ভিত্তিতে ভাঙন রোধে পদক্ষেপ নেওয়া না হলে পালডাঙ্গী ও তাহের ফকিরের ডাঙ্গীর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা হুমকির মুখে পড়বে। ভাঙন থেকে আধা কিলোমিটার দূরে রয়েছে সরকারি আবাসন প্রকল্পে ভূমিহীনদের জন্য নির্মিত ১২টি ঘর। সেখানকার পরিবারগুলো আতঙ্কে আছে।

ডিক্রিরচর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান বলেন, ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সঙ্গে কথা বলেছি। তবে তাদের দিক থেকে ইতিবাচক কোনো সাড়া পাইনি।

ফরিদপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পার্থ প্রতীম সাহা বলেন, পদ্মার পানি কমার কারণে ওই এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ