• মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪৩১

  • || ০৮ মুহররম ১৪৪৬

দৈনিক গোপালগঞ্জ

টঙ্গীতে জোড় ইজতেমা শুরু ১৩ অক্টোবর

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা মাঠে আগামী ১৩ অক্টোবর থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত পাঁচ দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে প্রথম পর্বের জোড় ইজতেমা। প্রতিবছর বিশ্ব ইজতেমার আগে জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। সা’দপন্থীদের আবেদনের ভিত্তিতে জোড় ইজতেমার প্রথম পর্ব এটি। পরে অনুষ্ঠিত হবে জোবায়েরপন্থীদের জোড় ইজতেমা।

এ ব্যাপারে গাজীপুর মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে জোড় আয়োজনের জন্য অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। এর আগে কাকরাইল জামে মসজিদ মারকাজের আহলে শূরার পক্ষে আবেদন করেন সৈয়দ ওয়াসিফ ইসলাম।

গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার স্বাক্ষরিত অনুমতি পত্রে বলা হয়েছে, নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজের অনুসারী তাবলীগের শুরার পক্ষে কাকরাইল মসজিদ, ঢাকার আবেদনের প্রেক্ষিতে টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে আগামী ১৩-১৭ অক্টোবর ৫ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠানের অনুমতি প্রদান করা হলো। অনুমতির অনুলিপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, স্থানীয় সংসদ সদস্য, স্বরাষ্ট্র সচিবসহ বিভিন্ন সরকারি দফতর ও গোয়েন্দা সংস্থাকে দেওয়া হয়েছে।

তাবলীগ জামাতের মাওলানা সাদ অনুসারী ও মিডিয়া সমন্বয়ক মোহাম্মদ সায়েম জানান, প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমার আয়োজনের প্রস্ততির জন্য ইজতেমার নির্ধারিত সময়ের আগে দাওয়াত ও তাবলীগের মেহনত সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা এবং টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমার সফলতার জন্য পুরানা তাবলীগ সাথীদের অংশগ্রহণে পাঁচ দিনের জোড় আয়োজন করা হয়ে থাকে। জোড় এ মূলত সারাদেশের মুরুব্বী ও পুরনো সাথীরা অংশগ্রহণ করেন। আগামী ১৩ থেকে ১৭ অক্টোবর এ ৫ দিন সাদ অনুসারীদের জোড় অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও জানান, জোড় আয়োজনের জন্য বিশ্ব তাবলীগের নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজের (মাওলানা সাদ) অনুসারী অংশের আহলে শুরা সদস্য সৈয়দ ওয়াসিফ ইসলাম গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনারের কাছে আবেদন করেছিলেন। রোববার আমরা অনুমতি পেয়েছি। গত কয়েক বছর ধরে এ জোড় ইজতেমা ময়দানের বাইরে আয়োজন করা হতো। এবার ময়দানে আয়োজনের অনুমতি দেওয়ায় তিনি সরকারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, এবারের জোড়ে লক্ষাধিক তাবলীগের পুরনো সাথী অংশ নিতে আসবেন। তাদের মধ্যে ভারতের মেহমানও থাকবেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ইজতেমায় বিশ্ব তাবলীগের আমীর মাওলানা সাদের একটি বক্তব্যকে কেন্দ্র করে তাবলীগ জামাতের মুরুব্বীরা মাওলানা সাদ পন্থী ও মাওলানা জোবায়ের পন্থী এ দুইভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েন। এর ফলে গত কয়েক বছর ধরে বিশ্ব ইজতেমা দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

সাধারণত প্রতি বছর জানুয়ারী মাসে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু আগামী ২০২৪ সালের বিশ্ব ইজতেমার তারিখ এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তবে, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে তারিখ নির্ধারণ করা হবে।

এ বিষয়ে গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহবুব আলম সাংবাদিকদের বলেন, প্রতি বছরই জোড় আয়োজন করা হয়ে থাকে। একপক্ষ আবেদন করেছে, আমরা সবদিক বিবেচনায় নিয়ে অনুমতি দিয়েছি। সামনে জাতীয় নির্বাচন এজন্য আমরাও চাই এ ধরণের বড় জমায়েত আগেই শেষ হয়ে যাক। আমরা তাদের সব রকম সহায়তা দেব। আশা করি শান্তিপূর্ণভাবে জোড় অনুষ্ঠান সম্পন্ন হবে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ