• শুক্রবার   ২০ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪২৯

  • || ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

মোটরসাইকেলের গতি বাড়ানোর উপায়

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৯ মে ২০২২  

মোটরসাইকেল প্রেমীদের যেন আত্মার সঙ্গে জুড়ে থাকে তার শখের মোটরসাইকেলটি। দুই চাকার যানটির সঙ্গেই যেন তার যত সন্ধি। তবে ঠিক মতো পরিচর্চা না করা কিংবা আরও বিভিন্ন কারণে সাধের বাইকের গতি কমতে থাকে। কমবেশি সব বাইকারকেই এ সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

বাইকের মাইলেজ কমে যাওয়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে বাইকারের চালানোর ধরন এবং মেইনটেন্যান্স পদ্ধতি। শুধু নতুন নতুন ফিচারের বাইক কিনলেই এর ভালো পারফরম্যান্স পাওয়া যায় না। এজন্য প্রয়োজন সঠিক পরিচর্যা। সেই সঙ্গে আরও কিছু উপায় রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে খুব সহজেই বাইকের এ সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

চলুন জেনে নেওয়া যাক আপনার শখের বাইকের গতি বাড়াতে কী কী উপায় রয়েছে-

১) রাস্তায় চলার কারণে বাইকে ধুলা-ময়লা, কাদা লাগতেই পারে। তাই নিয়মিত ময়লা পরিষ্কার করুন। সাধারণ পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে পারেন। পানির সঙ্গে শ্যাম্পু মিলিয়েও পরিষ্কার করা যায়। বাইক পরিষ্কার করার সময় এমন জায়গা বেছে নিন, যেখানে বাইকে মাটি না লাগে। ডবল স্ট্যান্ড করে পরিষ্কার করলে বাইকের সব অংশ সুন্দরভাবে ধোয়ামোছা করা যায়।

২) সকালে অনেকেই স্টার্ট করে হাই আরপিএমে বাইক চালান। কিন্তু এই কাজটা একেবারেই করবেন না। এর ফলে আপনার বাইকের ইঞ্জিনের পারফরম্যান্স কিছুটা কমে যেতে পারে। দিনের শুরুতে বাইক স্টার্ট দেওয়ার সময় কিক ব্যবহার করুন। যে সব বাইকে কিক নেই তারা বাইক স্টার্ট করে কমপক্ষে ১ মিনিট অপেক্ষা করুন। বাইকের ইঞ্জিন গরম করে তারপর বাইক চালানো শুরু করুন। সকালের শুরুর দিকে বাইক হাই আরপিএমে চালানো থেকে বিরত থাকুন।

৩) সঠিক সময়ে টায়ার পরিবর্তন করা খুবই জরুরি বাইকের জন্য। অনেকেই মনে করেন টায়ারের সঙ্গে গতির কোনো সম্পর্ক নেই, এ ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। টায়ারে যদি গ্রিপ ঠিক না থাকে তাহলে আপনি কিছুটা হলেও গতি কম পাবেন। শুধু কম গতি না টায়ার ঠিক না থাকলে আপনি নিরাপদে ব্রেকিংও করতে পারবেন না। তাই চেষ্টা করুন সঠিক সময়ে টায়ার চেঞ্জ করতে।

৪) সবসময় ভালো ফুয়েল ব্যবহার করুন। ফুয়েল হচ্ছে যানবাহনের খাদ্য। তাই বাইকের ইঞ্জিন ভালো রাখতে এবং ভালো গতি পাওয়ার জন্য ভালো ফুয়েল খুবই জরুরি। ভালোমানের ফুয়েল ব্যবহার করলে বাইকে ভালো গতিও পাবেন আবার ইঞ্জিনও অনেক দিন ভালো থাকবে।

৫) ভালো ফুয়েলের পাশাপাশি ভালো ইঞ্জিন অয়েল ব্যবহার করাও খুবই জরুরি। একটি বাইকে যত প্রকারের অয়েল ব্যবহার করা হয় এর মধ্যে ইঞ্জিন অয়েল খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ইঞ্জিন অয়েল আপনার বাইকের ইঞ্জিন স্মুথ রাখতে এবং ইঞ্জিনকে পরিষ্কার রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। ভালো মানের আসল ইঞ্জিন অয়েল ব্যবহার করলে এবং তা সঠিক সময়ে পরিবর্তন করা হলে বাইকের ভালো গতি পাবেন।

৬) গতি বাড়াতে নিয়মিত বাইকের চেনের যত্ন নিন। বাইকের চেন গতিতে অনেক ভূমিকা রাখে। চেন যেমন বাইকের স্পিড বাড়ানোর জন্য কাজ করে তেমনি নিরাপদ পথচলাও নিশ্চিত করে। তাই সব সময় বাইকের চেনের দিকে লক্ষ্য রাখুন। চেন লুস থাকলে সেটা টাইট করিয়ে নিন। তবে সব সময় লক্ষ্য রাখুন চেন যেন বেশি লুস অথবা টাইট না থাকে।

চেন স্পোকেটের দিকে খেয়াল রাখুন। অনেক দিন হলে এটি ক্ষয়ে যেতে পারে। তাই যদি ক্ষয় হয় আপনি আপনার বাইকে ভালো গতি পাবেন না। বাইকে ভালো গতি পেতে হলে আপনাকে বাইকের চেন এবং চেন স্পোকেটের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

৭) বাইকের ব্রেকের দিকে নজর রাখুন। এটি যেমন আপনার নিরাপদ পথচলা নিশ্চিত করে, ঠিক তেমনি আপনার বাইকের গতির সঙ্গেও এটি যুক্ত আছে। আপনার বাইকের ব্রেক যদি কোনো কারণে খুব বেশি টাইট থাকে তাহলে আপনার বাইকের ইঞ্জিন থেকে প্রচুর শক্তি খরচ হবে কিন্তু গতি খুব ভালো পাবেন না। টাইট ব্রেক বাইকের গতি কমে যাওয়ার পিছনে বিশেষ ভূমিকা রাখে, সেজন্য এই দিকে লক্ষ্য রাখুন।

৮) নিয়মিত এয়ার ফিল্টার পরিবর্তন করুন। এয়ার ফিল্টার বাইয়াকের ইঞ্জিনকে অনেকভাবে সহায়তা করে। সার্ভিসিং এর সময় এয়ার ফিল্টার চেক করুন। যদি এয়ার ফিল্টার নষ্ট হয়ে যায় সেটা পরিবর্তন করুন।

৯) বাইকের বাইকের ভালব ক্ষয় হলেও গতি কমে যেতে পারে। তাই মাঝে মাঝে মেকানিককে দিয়ে আপনার বাইকের ভালব দেখিয়ে নিন। যদি দেখেন কোনো সমস্যা আছে তাহলে দেরি না করে আপনার বাইকের ভালব চেঞ্জ করিয়ে ফেলুন।

১০) অনেক সময় বেশি ওজনের কারণেও বাইকের গতি কমে যায়। তাই দুইজন একসঙ্গে বাইকে চড়া পরিহার করুন। এ ছাড়াও বাইকের অব্যবহৃত অংশগুলো খুলে রাখুন। এতে বাইকের ওজন কিছুটা হালকা হবে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ