• রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

দৈনিক গোপালগঞ্জ

ব্যক্তিগত তথ্য গোপন রাখার ৭ সার্চ ইঞ্জিন

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ জুলাই ২০২৪  

প্রযুক্তিনির্ভর এ যুগে ব্যবহারকারীর তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষা করে এমন কার্যকর ব্রাউজার খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। অথচ এমন কিছু সার্চ ইঞ্জিন রয়েছে, যা তথ্য সংরক্ষণ না করে সঠিক ফল দিতে চেষ্টা করে। ব্যবহারকারীর সুবিধার্থে মেক ইউজ অব ওয়েবসাইটে এমন সাতটি প্রাইভেট সার্চ ইঞ্জিনের বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে।

 

ডাকডাকগো: যারা ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করার সময় তাদের গোপনীয়তা অক্ষুণ্ন রাখতে চান, তাদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সার্চ ইঞ্জিন ডাকডাকগো হতে পারে অন্যতম পছন্দ। এ সার্চ ইঞ্জিন কোনো ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষণ ও বিক্রি করে না। তবে সরকার থেকে যদি কোনো তথ্য চাওয়া হয়, সেক্ষেত্রে ডাকডাকগো সম্মতি দেবে। যেহেতু সার্চ ইঞ্জিনটি তথ্য বিক্রি করে না, তাই ব্যবহারকারীকে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে এটি বিকল্প উপায়ে আয় করে থাকে।

স্টার্টপেজ: নেদারল্যান্ডসভিত্তিক সার্চ ইঞ্জিন স্টার্টপেজ গুগলের মতোই কাজ করে। যদি ডাকডাকগোর সার্চ রেজাল্ট আশানুরূপ না হয়, সেক্ষেত্রে স্টার্টপেজ ব্যবহার করা যায়। এ সার্চ ইঞ্জিনটি গুগলকে পে করার মাধ্যমে তাদের সার্চ রেজাল্টগুলোই দেখায়। তবে এটি ব্যবহারকারীর তথ্য সংরক্ষণ করে না।

স্টার্টপেজ সার্চ রিকমেন্ডেশনের ক্ষেত্রেও বেশ যত্নশীল। সাধারণত একটি সার্চ ইঞ্জিনে অন্যরা কী সার্চ করছেন তার ওপর ভিত্তি করে ব্যবহারকারীর অনুসন্ধানের বিষয়ে সুপারিশ করে। এর জন্য সার্চ ইঞ্জিনের প্রয়োজন হয় ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা, যা স্টার্টপেজ সমর্থন করে না।

মেটাজার: এটি একটি জার্মানভিত্তিক প্রাইভেসি-ফোকাসড সার্চ ইঞ্জিন। ওয়েবসাইট পরিদর্শনের সময় এটি ব্যবহারকারীর অবস্থান-সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করে না। মেটাজার সার্চ রেজাল্টের জন্য স্কোপিয়া এবং বিং সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করে।

কোয়ান্ট: কোয়ান্ট ফরাসিভিত্তিক সার্চ ইঞ্জিন, যা বেশকিছু ফিচার নিয়ে তৈরি। তবে কিছু ফিচার ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীর অবস্থান বা ব্যক্তিগত বিবরণ প্রয়োজন হয়। যারা সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গোপনীয়তাকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন তাদের জন্য এ সার্চ ইঞ্জিন আদর্শ নয়।

মজিক: এ পর্যন্ত যেসব সার্চ ইঞ্জিন নিয়ে কথা হলো—এগুলোর বেশিরভাগই সার্চ রেজাল্টের জন্য অন্য সার্চ ইঞ্জিনের ওপর নির্ভরশীল। তবে মজিক এক্ষেত্রে ভিন্ন। যুক্তরাজ্যভিত্তিক মজিক অন্য কারো সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করার পরিবর্তে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা নিশ্চিত করতে তাদের নিজস্ব তথ্য ব্যবহার করে। তবে এক্ষেত্রে আপনি যে সার্চ রেজাল্ট পাবেন তা নিখুঁত নাও হতে পারে।

কাগি: গুগলের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা যাবে কাগি। এটি ব্যবহারের জন্য একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হয়, যেখানে বিনামূল্যে ১০০টি সার্চ করা যাবে। ৩০০টি সার্চের জন্য মাসে ৫ ডলার এবং আনলিমিটেড সার্চের জন্য ১০ ডলার দিতে হবে।

সুইসকাউস: নামটা কিছুটা উদ্ভট হলেও এ সার্চ ইঞ্জিনটি ব্যবহারকারীর তথ্য গোপনীয়তার বিষয়টি বেশ গুরুত্বের সঙ্গেই দেখে। মালিক পক্ষের দাবি, তারা এ সার্চ ইঞ্জিন এমনভাবে ডিজাইন করেছেন যাতে তাদের পক্ষে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব হয় না।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ