• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

মেসির ৫ গোল, টানা ৩৩ ম্যাচ অপরাজিত আর্জেন্টিনা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২২  

আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে সহজ জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। এস্তোনিয়াকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা। ৫টি গোলই এসেছে লিওনেল মেসির পা থেকে। মেসির গোল উৎসবের দিন নিজেদের অপরাজিত যাত্রাকে ৩৩ ম্যাচে উন্নীত করলো আর্জেন্টিনা। সবশেষ ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকায় পরাজয়ের তেতো স্বাদ পেয়েছিল আলবিসেলেস্তেরা। এরপর খেলা ৩৩ ম্যাচের একটিতেও হারেনি দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দেশটি।

স্পেনের পাম্পলোনায় অনুষ্ঠিত ম্যাচে আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি চেয়েছিলেন বেঞ্চের সবাইকে ঝালিয়ে নিতে। যে কারণে ৫দিন আগে ইতালির বিপক্ষে ম্যাচ থেকে এস্তোনিয়ার বিপক্ষে লাইনআপে ৮টি পরিবর্তন আনেন তিনি।

আগের ম্যাচের থেকে মাত্র তিনজন এ ম্যাচে ছিলেন, মেসি, রদ্রিগো দে পল ও নাহুয়েল মলিনা। তারপরও ম্যাচের প্রাধান্য বিস্তার করে দুর্দান্ত জয় বাগিয়ে নিতে সমস্যা হয়নি আলবিসেলেস্তেদের।

কারণ লিওনেল মেসির দুর্ধর্ষ ফর্ম। ম্যাচের প্রথমার্ধে ২টি ও বিরতির পর আরও ৩টি গোল করেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক।

মেসির প্রথম গোল আসে পেনাল্টি থেকে। রোববার রাতের ম্যাচে একেবারে শুরুতেই হেরমান পেসেজাকে নিজেদের বক্সে ফাউল করেন এস্তোনিয়ার গোলকিপার মাতভেই ইগোনেন। রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দিলে স্পট থেকে গোল করতে ভুল করেননি মেসি। ম্যাচের ঘড়িতে তখন সময় ৮ মিনিট।

শুরুতে গোল পেয়ে যাওয়ায় নতুন কম্বিনেশন ও একাদশ নিয়েও আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে আর্জেন্টিনা। বরাবরের মতো খেলার সঞ্চালকের ভূমিকায় ছিলেন মেসি।

বিশ্বসেরা ফুটবলার তার দ্বিতীয় গোলের দেখা পান পাপু গোমেসের সঙ্গে যুগলবন্দিতে। ৪৫ মিনিটের সময় বক্সের বাইরে থাকা গোমেস ডান দিক থেকে বক্সে আগুয়ান মেসির দিকে চমৎকার পাস বাড়ালে সেটা থেকে গোল করতে সমস্যা হয়নি তার।

মেসির জোড়া গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে আর্জেন্টিনা।

বিরতির পরপরই হ্যাটট্রিক তুলে নেন মেসি। এবারে বক্সের ডান দিকে থাকা রদ্রিগো দে পল ক্রস ছাড়েন বাম প্রান্ত থেকে বক্সে প্রবেশ করা মেসির উদ্দেশে।

আলতো টোকায় ইগোনেনকে পরাস্ত করেন সাতবারের ব্যলন ডর জয়ী। নিশ্চিত করেন আর্জেন্টিনার বড় জয়।

আর্জেন্টিনার জার্সিতে এটি মেসির অষ্টম হ্যাটট্রিক। এর আগে সুইজারল্যান্ড, ব্রাজিল, গুয়াতেমালা, পানামা, ইকুয়েডর, হাইতি ও বলিভিয়ার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন তিনি। এর মধ্যে সবশেষ হ্যাটট্রিক এসেছিল ২০১৭ সালের অক্টোবরে ইকুয়েডরের বিপক্ষে।

তবে মেসির গোল উৎসব সেখানেই থামেনি। সুপার হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন ৭১ মিনিটে। পাপু গোমেসকে এস্তোনিয়ার সীমানার ভেতর ফাউল করার পর বল পেয়ে যান মেসি। দৌঁড়ে ঢুকে পড়েন বক্সে। অনবদ্য বডি ডজে ডিফেন্ডার ও কিপারকে বোকা বানিয়ে তুলে নেন নিজের চার নম্বর গোল।

এর মিনিট পাঁচেক পরই নিজের পঞ্চম গোল স্কোর করেন মেসি। এস্তোনিয়ার বক্সে পাওলো দিবালা ও হুলিয়ান আলভারেসের টানা দুই শট বাধা পেলে বল পেয়ে যান মেসি। তার শট ঠেকাতে পারেননি গোলকিপার। ফলে এক ম্যাচে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ৫ গোল করলেন মেসি।

এর আগে, ২০১১-১২ মৌসুমে বেয়ার লেফারকুজেনের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ১৬তে বার্সেলোনার হয়ে ৫ গোল করেছিলেন মেসি।

এস্তোনিয়ার বিপক্ষে প্রায় ৫ বছর পর হ্যাটট্রিকের দেখা পেলেন তিনি। এতে করে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় ফেরেঙ্ক পুসকাসকে ছাড়িয়ে চার নম্বরে উঠে এলেন মেসি। তার গোল সংখ্যা এখন ৮৬টি।

তার চেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক গোল করেছেন মোখতার দাহানি (৮৯), আলি দাইয়ি (১০৯), ক্রিস্টিয়ানো রোনালডো (১১৫)।

৫-০ গোলের বড় জয়ে বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম পর্ব শেষ করল আর্জেন্টিনা। এরপর সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে তারা অন্তত আরও ২টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ