• রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৩ ১৪২৯

  • || ১৪ রজব ১৪৪৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

মাদারীপুরে স্থানীয় দলাদলির জেরে ভ্যানচালকে কুপিয়ে হত্যা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২৩  

স্থানীয় দলাদলিকে কেন্দ্র করে মারামারি ঘটনায় কামাল মাতুব্বর নামে এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছে। শনিবার (৭ জানুয়ারি) দুপুরে দিকে পেয়ারপুর ইউনিয়নের গাছবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় আরো ৩ জন আহত হয়েছে।

নিহত কামাল মাতুব্বর একই এলাকার সলেমান মাতুব্বরের ছেলে। আহতরা হলেন- দাদন হাওলাদার, নুরুজ্জামান হাওলাদার, রাজীব হাওলাদার।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান লাভলু তালুকদার ও সাবেক চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খানের সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় দলাদলি চলে আসছিল। এর জের ধরে আজ দুপুরে সাবেক চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খানের সমর্থক রাসেল বেপারী, মামুন আকনসহ বেশকিছু লোকজন লাভলু তালুকদারের সমর্থকদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে।

এ সময় কামাল মাতুব্বরকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে হামলাকারীরা। পরে স্বজনরা কামাল মাতুব্বরকে আহত অবস্থায় তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের কামালের স্ত্রী শাহিনুর বেগম বলেন, হামলাকারীরা আমার ঘরের সামনে এসে আমার স্বামীকে তারা কোপাতে ছিলেন। আমি দৌড়ে গিয়ে তাদের ফিরাতে গেলে তারা আমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। পরে চমি বেহুশ হয়ে পরি। এ কারনে আমি কাউকেই চিনতে পারিনি। আমার স্বামীকে যারা মেরে ফেলেছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।

নিহতের ভাগনি জোসনা বেগম বলেন, আমার মামার গরিব মানুষ সে ভ্যান চালিয়ে সংসার চালায়। তার ছোট ছোট দুইটা সন্তান আছে। যারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের আমরা ফাঁসি চাই।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. রুবায়েত ইবনে হাবীব বলেন, কামাল মাতুব্বরকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে এসেছে। তার শরীরে অনেক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন ছিল। ময়নাতদন্তের ফলাফল আসলে বাকিটা জানা যাবে।

পেয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লাভলু তালুকদার বলেন, আমার প্রশাসনের কাছে দাবি। যারা এই হত্যার সাথে তাদেরকে দ্রুত গ্রেপ্তার করা হোক।

জানতে চাইলে মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, মারামারির ঘটনায় ভ্যানচালক নিহতের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। বর্তমানে পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে রয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবার থেকে অভিযোগ পেলে দোষীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ