• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

কেন ৮৬৫৮ বছরের কারাদণ্ড হলো এই ধর্মীয় নেতার?

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০২২  

সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম আদনান ওকতার। বয়স ৬৬ বছর।

তিনি তুরস্কের বিতর্কিত ইসলামিক প্রচারক ও বিভিন্ন ধর্মীয় গ্রন্থের লেখক। তার আরও কয়েকটি নাম রয়েছে- যেমন: আদনান হোকা, হারুন ইয়াহিয়া ও সামি ওলকুন।
টেলিভিশনে নিজেকে মুসলিম মতাদর্শ প্রচারক আখ্যা দিতেন তিনি। এ নাইন টিভি নামে তার নিজস্ব একটি চ্যানেল রয়েছে। এতে তিনি সৃষ্টিবাদ ও রক্ষণশীল মূল্যবোধের প্রচারের দাবি করতেন।

আর সেসব আলোচনার ফাঁকে চড়া মেকআপ ও স্বল্প পোশাক পরা সুন্দরী নারীদের সঙ্গে নাচও করতেন প্রকাশ্যে। এ নারীদের তিনি আদর করে নিজের ‘বিড়ালছানা’ বলেও ডাকতেন। ভিসিস ম্যাগাজিন তাকে ‘তুরস্কের সবচেয়ে কুখ্যাত ধর্মীয় নেতা’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

এবার দেশটির একটি আদালত তাকে আট হাজার ৬৫৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন। বুধবার এ রায় দেওয়া হয়।

জানা গেছে, ২০২১ সালে ৬৬ বছর বয়সী এ বৃদ্ধকে যৌন নিপীড়ন, নাবালিকাদের যৌন নির্যাতন, জালিয়াতি এবং রাজনৈতিক ও সামরিক গুপ্তচরবৃত্তিসহ কয়েকটি অপরাধের জন্য এক হাজার ৭৫ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু উচ্চ আদালতে সেই রায় বাতিল করা হয়। পুনঃবিচারে ইস্তাম্বুলের উচ্চ আদালত যৌন নির্যাতনসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগে ওকতারকে আট হাজার ৬৫৮ বছরের কারাদণ্ড দেন।

এছাড়া আরও ১০ জন সন্দেহভাজনকে আট হাজার ৬৫৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ওই আদালত।

সূত্র: দ্য টেলিগ্রাফ, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ