• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

গোপালগঞ্জে মা-মেয়ে হত্যার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

গোপালগঞ্জে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ও এসএসসি পরীক্ষার্থী ভাতিজিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি হারুন মিনাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে জেলার কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গোপীনাথপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. আশরাফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, হত্যাকাণ্ডের পরপরই পালিয়ে যান প্রধান আসামি হারুন মিনা। কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা এলাকায় মধুমতি নদী পার হয়ে পালানোর চেষ্টা করেন তিনি। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হারুন মিনাকে গোপালগঞ্জ সদর থানা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রটি উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রোববার সন্ধ্যায় বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোনে দুলাভাইয়ের সঙ্গে কথা বলছিল টুকু মিনার এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়ে লামিয়া (১৫)। এ সময় বড় চাচা হারুন মিনা ভাতিজি লামিয়াকে সরে গিয়ে কথা বলতে বলেন। তবে লামিয়া না সরায় তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে বড় চাচা হারুন মিনা ও তার স্ত্রী এবং মেয়ে মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে লামিয়া ছাড়াও তার মা বিউটি বেগম, বোন অন্তরাকে কুপিয়ে আহত করে।

এতে ঘটনাস্থলেই লামিয়ার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা আহত লামিয়ার মা বিউটি বেগম ও বোন অন্তরাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিউটি বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ