• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

হামাগুড়ি দিয়ে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিলেন আজহারুল

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০২২  

জন্ম থেকেই দুই পা উল্টো সরু-বাঁকা। দুইটি হাতও বাঁকা। তবে এর পরেও অদম্য ইচ্ছা থাপাতে পারেনি তাকে। দুই হাতের ওপর ভর করে হামাগুড়ি দিয়ে গতকাল রোববার (৬ নভেম্বর) মদন সরকারি হাজী আব্দুল আজিজ খান ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী আজহারুল।

তার বাড়ি নেত্রকোণার মদন উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের বনতিয়শ্রী গ্রামে। ওই গ্রামের দিনমজুর মনির উদ্দিনের ছেলে আজহারুল। তিনি এ বছর বালালী বাঘমারা শাহজাহান মহাবিদ্যালয়ের মানবিক বিভাগ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন। এর আগে আজহারুল প্রাথমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ২.৮৩ পেয়ে কৃতকার্য হন। জেএসসিতে ২. ৫৫ পয়েন্ট ও এসএসসি পরীক্ষায় ২.৮৯ পয়েন্ট অর্জন করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বালালী বাঘমারা শাহজাহান কলেজের নিয়মিত ছাত্র আজহারুল ইসলাম। দুই হাতে ভর করে হামাগুড়ি দিয়ে প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তা প্রতিদিনই অতিক্রম করতেন তিনি। এর আগেও সে একইভাবে বালালী বাঘমারা উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়মিত আসা যাওয়া করেছেন। অটোরিককশা দিয়ে যাতায়াত করলে প্রতিদিন খরচ হতো ৬০ থেকে ৭০ টাকা। বাবা দিন মজুর তাই গাড়ি ভাড়া দিতে না পাড়ায় হামাগুড়ি দিয়েই প্রতিদিন যাতায়াত করতেন তিনি। আজহারুল জানান, আমার ইচ্ছা ভালো একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করার। লেখাপড়া শেষ করে পরিবারের জন্য কিছু একটা করাই আমার লক্ষ।

মদন সরকারি হাজী আব্দুল আজিজ খান ডিগ্রী কলেজের কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ মো. শফিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, হামাগুড়ি দিয়ে চলে আজহারুল আজ আমাদের কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে এসেছে। তিনি অতিরিক্ত সময়ের জন্য একটি আবেদন করেছেন। আমি আবেদনটি মঞ্জুর করেছি এবং তাকে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করেছি।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ