• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

ভারতেও ইসরায়েলি পণ্য বয়কটের ডাক

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২৩  

ফিলিস্তিনের জনগণের সমর্থন ও ইসয়ায়েলিদের অমানবিক হামলার প্রতিবাদে ভারতের কিছু মুসলমান, ইসরায়েলি এবং মার্কিন পণ্য বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতোমধ্যে দেশটির কয়েকটি অঞ্চলের ক্রেতা-বিক্রেতারা ঘোষণা দিয়ে ওই দুই দেশের পণ্য বর্জন করেছেন।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) কাতার-ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক ভিডিও প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভারতের মোহাম্মদ নাদিম নামের এক দোকানদার জানান, পণ্য বর্জনের ফলে হয়তো আয় কমে যাবে কিন্তু আমরা তো ফিলিস্তিনিদের সাথে কাঁধে কাঁধ রেখে লড়াই করতে পারি না। তাই ইসরায়েলি পণ্য বয়কটের মাধ্যমে আমরাও এই যুদ্ধে শামিল হচ্ছি। তিনি আরও জানান, আগে ইসরায়েলি ও মার্কিন পণ্যের চাহিদা তুমুল থাকলেও  ক্রমেই তা কমছে। সুতরাং এই বর্জনের প্রভাব কিছুটা হলেও যুদ্ধে প্রভাব ফেলবে।

বিশেষ করে, ভারতের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে ইসরায়েলি ও মার্কিন পণ্য বর্জনের আন্দোলন প্রকট আকার ধারণ করেছে। আলাদা ভাবে মুসলিম পরিবারগুলোও ইসরায়েলি ও মার্কিন পণ্য বর্জন করছেন।

ভিডিও প্রতিবেদনে দেখা যায়, আশার ইমতিয়াজ নামে ৯ বছর বয়সী এক ভারতী শিশু ইসরায়েল-মার্কিন পণ্য বর্জনের আন্দোলনে অংশ নিয়ে বলেছে, ‘‘ফিলিস্তিনে মুসলিমদের ওপর ইসরায়েলের বর্বরতার খবর শোনার পর আমি এসব পণ্য কেনা বন্ধ করে দিয়েছি। আমি আর কোনও সহিংসতা চাই না, তাই গাজাকে রক্ষায় আমাদের এসব পণ্য কেনা বন্ধ করা দরকার"।

এদিকে ভারতের ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে বিক্ষোভ-প্রতিবাদকারীদের ওপর ব্যাপক ধরপাকড় অভিযান পরিচালনার অভিযোগ উঠেছে।  ফিলিস্তিনের সমর্থনে বিক্ষোভকারীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর হস্তে দমন করলেও দেশটিতে ইসরায়েলপন্থীরা প্রায়ই বিক্ষোভ সমাবেশ করছেন।

দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষক শারজিল উসমানি আলজাজিরাকে বলেছেন, পুলিশের সাথে সংঘর্ষ, কারাদণ্ড এবং আইনি লড়াইয়ের মুখোমুখি হয়ে প্রথমত এখানে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করাটাও লড়াইয়ের মতো।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ফিলিস্তিনের সমর্থনে আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছেন। পরে সেখানে চারজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ