• সোমবার ২০ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলকদ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

শীতে চাই কমলার জুস, উপকারিতা অনেক

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২৪  

শীতকাল মানেই কমলা লেবু। আর কমলা লেবুতে রয়েছে নানা গুণ। কমলার জুস পান করা যেমন সুস্বাদু, তেমনি স্বাস্থ্যকর। কমলার রসে অনেক প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-এ, ভিটামিন-বি, ভিটামিন-সি, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। যা শরীরকে অনেক রোগ থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।

শীতের মৌসুমে কমলার রস শুধু সকালে বা বিকেলে পান করা উচিত। এই সময়ে এই জুস পান করলে প্রচুর উপকার পাওয়া যায়। মনে রাখবেন কখনই খালি পেটে বা রাতে কমলার রস পান করবেন না, তা না হলে অ্যাসিডিটি এবং পেট সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে।

শীতে কমলার জুস পান করার উপকারিতা জেনে নিন-

ত্বক ভালো রাখে

শীতে ত্বক সুস্থ রাখে কমলার রস। এটি পান করলে ত্বক উজ্জ্বল হয়। কমলার রসে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি ফ্রি র‌্যাডিক্যালের কারণে হওয়া ক্ষত থেকে ত্বককে রক্ষা করতে পারে এবং ব্রণ, দাগ ও বলিরেখা থেকে মুক্তি দেয়।

হার্টের জন্য ভালো

শীতে কোলেস্টেরলের সমস্যা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। কমলার রস খেলে উচ্চ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করতে পারে।

শরীরে পানির অভাব হয় না

শীতে পানি খাওয়া কমে যায়। এই কারণে, ডিহাইড্রেশনের ঝুঁকি থাকে, যা দুর্বলতা, ক্লান্তি, মাথাব্যথা এবং মাথা ঘোরার মতো সমস্যা তৈরি করতে পারে। এমন অবস্থায় কমলার রস পান করলে শরীর হাইড্রেটেড থাকে।

চোখের জন্য উপকারী

শীতকালে চোখের স্বাস্থ্যের জন্য কমলার রস উপকারী। এতে পাওয়া ভিটামিন এ চোখকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

শীতকালে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে। এ কারণে শরীর দ্রুত রোগের কবলে পড়ে। প্রতিদিন এক গ্লাস কমলার রস পান করা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য উপকারী। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। প্রতিদিন কমলার রস পান করলে সর্দি, কাশি ও জ্বরের মতো সমস্যা কমে যায়।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ