• রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪৩০

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

দুই বাসের পাল্লাপাল্লিতে জাবি শিক্ষার্থীসহ নিহত ৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০২৩  

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অর্থনীতি বিভাগের ৪০ ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থী এবং ৪১ তম বিসিএসে (শিক্ষা) সুপারিশপ্রাপ্ত মোহাম্মদ রুবেল পারভেজসহ পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া, আহত হয়েছেন আরও এক পথচারী।

আজ (৭ ডিসেম্বর) বৃহস্পতিবার  সকাল সাড়ে ৮ থেকে সাড়ে ৯ টার মধ্যে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের থানা বাসস্ট্যান্ড এবং সাভার হাইওয়ে থানার সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। নিহতদের মধ্যে বাকিরা হলেন- মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার মমতাজ উদ্দিনের ছেলে মোঃ আব্দুল মান্নান এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা থানার মধুপুর গ্রামের মোহাম্মদ খলিল (৪০) ও তার ছেলে মোঃ ইসমাইল হোসেন (১৭)।

নিহত রুবেল পারভেজের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানায়। তিনি স্ত্রী ফারজানা, মেয়ে ফারিহা আর মাকে নিয়ে ধামরাইয়ে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি মানিকগঞ্জের ঝিটকা মার্কেন্টাইল ব্যাংকে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

সাভার হাইওয়ে থানা পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ আবু হাসান বলেন, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই থানা বাসস্ট্যান্ডে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন রুবেল, মান্নান ও আরেকজন পথচারী। এ সময়, ঢাকাগামী সেলফি পরিবহনের দুই বাস পাল্লাপাল্লি করে একে অপরকে ওভারটেক করার চেষ্টা করলে তাদেরকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই পারভেজ ও মান্নান মারা যান। অপরজনকে উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এদিকে জাবি শিক্ষার্থী রুবেল পারভেজের মৃত্যুর ঘটনা মেনে নিতে পারছেন না তার সহকর্মী, বন্ধুবান্ধব ও বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ফলে এদিন তাৎক্ষণিক সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে জাবির প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে সেলফি পরিবহনের বাস আটক করতে শুরু করেন তারা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৮টি বাস আটক করা হয়।

সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে হাইওয়ে থানার পরিদর্শক বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সেলফি পরিবহনের বাসটি এবং কাভার্ডভ্যান রেখে এর চালক ও সহকারীরা পালিয়ে গেছেন। নিহতদের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একই মহাসড়কের সাভার হাইওয়ে থানার সামনে মোটরসাইকেল নিয়ে ইউটার্ন নিচ্ছিলেন মোহাম্মদ খলিল ও ছেলে ইসমাইল। তখন আরিচাগামী একটি কাভার্ড ভ্যান তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মারা যান ইসমাইল। গুরুতর আহত অবস্থায় খলিলকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করালে সেখানে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ