• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

রমজানে দ্রব্যমূল্য বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। গতকাল দুপুরে রাজশাহীতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। পরে নগরীর উপকণ্ঠে বায়ার এয়ারপোর্ট থানার নিকটবর্তী ময়দানে আহলে হাদিস আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আয়োজিত দু’দিনব্যাপী ৩৪তম বার্ষিক তাবলীগী ইজতেমার শেষদিন আগত মুসল্লিদের সঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করেন তিনি।  গণমাধ্যম কর্মীদের প্রশ্নের জবাবে সালমান এফ রহমান বলেন, এখন ডলারের কোনো সংকট নেই। কিছুদিন আগেও ডলার পাওয়া যাচ্ছিল না। এখন ডলার আছে, তবে দাম একটু বেশি। সেটাও নিয়ে আমার বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি এরই মধ্যে কিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন। আশা করছি, দ্রুত সময়ের মধ্যে ডলারের রেট একটা জায়গায় দাঁড়াবে। প্রতিবারের মতো রমজান মাসে বাড়তি মুনাফা করার হীন উদ্দেশ্যের কথা উল্লেখ করে সালমান এফ রহমান বলেন, অসাধু ব্যবসায়ীরা এবার পণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংসদে খাদ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি কয়েকদিনের মধ্যে সারা দেশের ডিসি-এসপিদের ঢাকায় ডাকছেন। তিনি তাদের নির্দেশ দেবেন কীভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 আসন্ন রমজান মাস সুন্দরভাবেই শেষ হবে আশা প্রকাশ করে বলেন, রমজানের আগে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার প্রশ্নগুলো হয়। আবার রমজান ইনশাআল্লাহ্‌ খুব সুন্দরভাবেই শেষ হয়। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, এই রমজানও ইনশাআল্লাহ্‌ আল্লাহ্‌র রহমতে আমরা ভালোভাবেই কাটাব। কোনো সমস্যা হবে না। দোকানদাররা যদি পণ্য মজুতও করে, তাহলে সেটা যদি রমজানে না ছাড়ে, তাহলে তো তার লোকসান হয়ে যাবে। এ দিন সালমান এফ রহমান রাজশাহীর বায়া এলাকায় থাকা আহলে হাদিস আন্দোলন বাংলাদেশ আয়োজিত ৩৪তম তাবলীগী ইজতেমা পরিদর্শনে আসেন। ইজতেমা ময়দানে যাওয়ার আগে আমচত্বর এলাকায় তিনি আহলে হাদিস আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মুহ্‌তরাম আমীরে জামাত অধ্যাপক ড. মুহম্মদ আসাদুল্লাহ আল গালিবের কার্যালয়ে যান এবং তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সৌজন্য সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। জুমার নামাজ শেষে তাবলীগী ইজতেমায় অন্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ। 

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় মানুষের চিন্তা করেন, মানুষের কল্যাণে কাজ করেন। তিনি টানা ১৫ বছর ক্ষমতায় আছেন। আমাদের সৌভাগ্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আবারো ৫ বছরের জন্য তাকে পেয়েছি। বাংলাদেশকে নিয়ে আমাদের যে স্বপ্ন আছে, আগামীতে সেই স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমরা এগিয়ে যাবো। রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। নানা চক্রান্ত ভেদ করে আমরা আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।  আগামী ৫ বছরে আমরা যে জায়গায় পৌঁছে যাবো, ইনশাআল্লাহ্‌ আমাদের আর পেছনে ফিরে তাকাতে হবে না। এমন একটা সুন্দর বাংলাদেশ গড়ছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় আহলে হাদিস আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আসাদুল্লাহ আল গালিব, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর মাওলানা নূরুল ইসলাম, আহলে হাদিস, যুবসংঘের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, ৩৪তম তাবলীগী ইজতেমার ব্যবস্থাপনা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মুহাম্মদ আব্দুল লতীফ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ