• বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪৩১

  • || ২১ জ্বিলকদ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

গোপালগঞ্জের স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২৪  

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার আলোচিত স্বামী কমলেশ বাড়ৈ (৪৫) হত্যা মামলায় স্ত্রী সুবর্ণা বাড়ৈ (৩৮) ও তার পরকীয়া প্রেমিক মনমথ বাড়ৈ (৪০) নামে দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

আজ মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) দুপুরে গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাকসুদুর রহমান সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এ রায় প্রদান করেন।

মৃত্যু দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কোটালীপাড়া উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের তালপুকুরিয়া গ্রামের মহেন্দ্রনাথ বাড়ৈর ছেলে মনমথ বাড়ৈ এবং কমলেশ বাড়ৈর স্ত্রী সুবর্ণা বাড়ৈ। রায় ঘোষণার সময় মৃত্যু দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা পলাতক ছিলেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, কমলেশ বাড়ৈ কাঠমিস্ত্রির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। কাঠমিস্ত্রি কমলেশ বাড়ৈর স্ত্রী সুবর্ণা বাড়ৈ সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়ায় একই গ্রামের মনমথ বাড়ৈ। বিষয়টি কমলেশ জানতে পারলে এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ শুরু হয়। এক পর্যায়ে সুবর্ণা বাড়ৈ ও তার পরকীয়া প্রেমিক তাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০২০ সালের ২ মার্চ দিবাগত গভীর রাতে কমলেশকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাওয়ানো হয়। পরে তাকে হত্যা করে মরদেহ ঘের পাড়ে মাটিচাপা দিয়ে রাখা হয়। প্রায় তিনমাস পর ঘেরপাড় থেকে কমলেশের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় কমলেশের ভাই রমেশ বাড়ৈ বাদী হয়ে সুবর্ণা ও মন্মথকে আসামি করে গত ৩০ মে কোটালীপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোটালীপাড়া থানার এসআই মো. আব্দুল করিম তদন্ত শেষে ২০২০ সালের ২৪ অক্টোবর আদালতে ২ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ