• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

মুকসুদপুরে স্ত্রী সন্তানের গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২৪  

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গোহালা ইউনিয়নের মুনিরকান্দি গ্রামে ঘুমন্ত স্ত্রী ও সন্তানের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেওয়ার ৬ দিন পরে দগ্ধ হেলেনা আক্তার (৩৬)-এর মৃত্যু হয়েছে।

আজ সোমবার (১০ জুন) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় হেলেনা আক্তকারের দগ্ধ ছেলে অন্তর (১১) এর অবস্থাও আশাঙ্কাজনক।  সে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি রয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ৪জুন মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তাদের গায়ে আগুন দেওয়া হয় বলে ভুক্তভোগী হেলেনার ভাই ইমরান হোসেন জানিয়েছেন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। শরীরের ৫০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করেন।

জানাগেছে,স্বামী ওমসান শেখ তার শ্বশুরবাড়ি মুনিরকান্দি গ্রামে অবস্থানরত ঘুমন্ত স্ত্রী হেলেনা (৩৬) ও তাদের সন্তান অন্তর (১১) এর গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। ওসমান মাদকাসক্ত থাকায় পারিবারিক ও দাম্পত্য কলহে অগ্নিদগ্ধ হেলেনা বেগম সন্তান অন্তরকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতেন। এই বিরোধে ওসমান গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় তাদের গায়ে পেট্রল ছুড়ে আগুন লাগিয়ে স্ত্রী সন্তানকে হত্যার চেষ্ঠা করে বলে পরিবার ও এলাকাবাসী জানিয়েছে। 

মুকসুদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আশরাফুল আলম জানান, স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ হেলেনা আক্তার ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। যথাযথ আইনি প্রক্রিয়ায় মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্ত করা হবে। এই ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। আগুন দেয়ার ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত আসামী ওসমান শেখকে গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ