• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করে সিইসির বৈঠক ত্যাগ করলেন ঐক্যফ্রন্ট

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮  

আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের উপর হামলার অভিযোগ জানাতে নির্বাচন কমিশনে এসে ছিলেন ড.কামালের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের একটি দল। সিইসি কে এম নুরুল হুদার কাছে তাদের অভিযোগগুলো তুলে ধরলে সিইসি সরকার এবং পুলিশের পক্ষ নিয়ে কথা বললে ড.কামাল রাগান্বিত হয়ে বৈঠক ছেড়ে চলে যান।

পরে নির্বাচন কমিশনের মিডিয়া সেন্টারে এসব কথা তুলে ধরেন ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এসময় তিনি আরো বলেন, সারাদেশে আমাদের নেতাকর্মী ও প্রার্থীদের উপর ভয়াবহ আক্রমণ চালাচ্ছে।গতকাল থেকে নির্বাচনের পরিবেশ একেবারে নষ্ট হয়ে গেছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। নির্বাচন সুষ্ঠু হবেকিনা এনিয়েও তিনি সংশয় প্রকাশ করেছে। নির্বাচন বর্জন করবেকিনা জানতেচাইলে তিনি বলেন, আমরা মাছে থাকবো শেষ পর্যন্ত ফাঁকা মাঠে কাউকে গোল দিতে দিব না।

আজ দুপুর ১২ টার দিকে কমিশনে বৈঠক করত নির্বাচন কমিশনে প্রবেশ করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। পরে দুপুর দেড়টার দিকে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এসময় মির্জা ফখরুল আরো বলেন,পুলিশের ভুমিকা নিয়ে আমরা কমিশনকে জানিয়েছি। পুলিশ বর্তমানে একটি দলের এজেন্টা বাস্তবায়নে আমাদের দলের প্রাীর্থী ও কর্মীদের উপর হামলা করছে,বাড়িঘর জালিয়ে দিচ্ছে।

সিইসির কার্যালয়ে কে এম নুরুল হুদার কাছে প্রার্থীদের উপর হামলা ও কর্মীদের গ্রেপ্তার নিয়ে অভিযোগ করেন ড. কামাল হোসেন।

পুলিশ আক্রমণে নেতৃত্ব ও সরাসরি হামলাকারিদের সহযোগিতা করছে বললে সিইসি রাগে বলে কোথায় হয়েছে আমাকে দেখান।

তখন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বলেন, আমাদের সাথে চলুন দেখাই। এভাবে একসময় উচ্চ বাক্য বিনিময় করে ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বেরিয়ে আসেন।

এসময় বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন,বিএনপির স্থায়ি কমিটির সমদ্য মির্জা আব্বাস,নজরুল ইসলাম খান,মঈন খান,গয়েশ্বর চন্দ্র রায়,ডা.জাফরুল্লাহ প্রমুখ

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ