• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

দৈনিক গোপালগঞ্জ

রমজানে দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, ‘আগামী রমজানে কোন প্রকার পণ্যের সংকট হবে না। এর মধ্যে ৪টি পণ্যের আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেয়া হয়েছে। এই সপ্তাহেই তেলের দাম ঠিক করে দেয়া হবে। সেই সাথে খেজুরের আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেয়া হয়েছে। রমজানে দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে। যারা কারসাজি করার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার নিজ বাস ভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, ‘ভারত আমাদের পিঁয়াজ ও চিনি সরবরাহের জন্য রাজি হয়েছে। আমরা ভারতসহ অন্যন্য পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস নিরবিচ্ছিন্ন সরবরাহ রাখতে কাজ করবো। খাদ্যমন্ত্রী বলেছেন- চালের কোন সংকট নেই। আমাদের প্রায় ১৭ লাখ টনের উপরে চালের মজুদ রয়েছে। কৃষিমন্ত্রী বলেছেন- আমনের আবাদ ভালো হয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘খাতুনগঞ্জ ব্যবসায়ীরা আমাকে বলেছেন, আগে বিভিন্ন জাহাজ থেকে মাল আসতো তাদের পণ্যটি সরাসরি তারা সারাদেশে সরবরাহ করতে পারতো। কিন্ত এখন যারা জাহাজের মালিক- তারাই মিলের মালিক, তারাই সরবরাহকারী। তাই কেউ যেন এককভাবে বাজার নিয়ন্ত্রণ না করতে পারে- সে জন্য আমরা ব্যবস্থা করবো।’

এসময় দেলদুয়ার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি এস প্রতাপ মুকুল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহমুদুল ইসলাম মারুফ প্রমুখ

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, ‘আগামী রমজানে কোন প্রকার পণ্যের সংকট হবে না। এর মধ্যে ৪টি পণ্যের আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেয়া হয়েছে। এই সপ্তাহেই তেলের দাম ঠিক করে দেয়া হবে। সেই সাথে খেজুরের আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেয়া হয়েছে। রমজানে দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে। যারা কারসাজি করার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার নিজ বাস ভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, ‘ভারত আমাদের পিঁয়াজ ও চিনি সরবরাহের জন্য রাজি হয়েছে। আমরা ভারতসহ অন্যন্য পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস নিরবিচ্ছিন্ন সরবরাহ রাখতে কাজ করবো। খাদ্যমন্ত্রী বলেছেন- চালের কোন সংকট নেই। আমাদের প্রায় ১৭ লাখ টনের উপরে চালের মজুদ রয়েছে। কৃষিমন্ত্রী বলেছেন- আমনের আবাদ ভালো হয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘খাতুনগঞ্জ ব্যবসায়ীরা আমাকে বলেছেন, আগে বিভিন্ন জাহাজ থেকে মাল আসতো তাদের পণ্যটি সরাসরি তারা সারাদেশে সরবরাহ করতে পারতো। কিন্ত এখন যারা জাহাজের মালিক- তারাই মিলের মালিক, তারাই সরবরাহকারী। তাই কেউ যেন এককভাবে বাজার নিয়ন্ত্রণ না করতে পারে- সে জন্য আমরা ব্যবস্থা করবো।’

এসময় দেলদুয়ার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি এস প্রতাপ মুকুল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহমুদুল ইসলাম মারুফ প্রমুখ

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ