ব্রেকিং:
ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ২ চলন্ত ট্রেনের ছাদে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে নিহত ২
  • শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৮

  • || ১৬ সফর ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

স্কুল খোলার প্রথম দিনেই মুকসুদপুরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১  

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রাকিবুল হাসানের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে বিদ্যালয় খোলার প্রথম দিনেই ক্লাস বর্জন করে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

রোববার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা নির্বাচন অফিসের সামনে কিছু সময় অবস্থান করে।

পরে উপজেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা বিভিন্ন ধরনের লেখা প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে বিক্ষোভ করে।

দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. কাবির মিয়া ও ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম মোল্যা আন্দোলনকারীদের এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন তুলে নেয়।

এ সময় শিক্ষার্থীরা জানায়, স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. রাকিবুল হাসান স্কুলে নানা ব্যাপারে দুর্নীতি করে আসছে। ২০২০ সালের জেএসসি পরীক্ষায় অনেক ছাত্র অংশগ্রহণ করে। রেজাল্ট আসার পর দেখা যায় ১২ জন শিক্ষার্থীর রেজাল্ট হাজী ছখিউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের নামে এসেছে।

প্রশংসাপত্র নেওয়ার সময় বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রাকিবুল হাসানের প্রতিষ্ঠিত উপজেলার প্রভাকরদী হাজী ছখিউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রশংসাপত্র দেয়। প্রশংসাপত্রে স্বাক্ষর করেন বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাকিবুল হাসান। এসব ছাত্রছাত্রী বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়মিত ছাত্র।

শিক্ষার্থীরা আরও জানায়, প্রধান শিক্ষক রাকিবুল হাসান দুর্নীতি করে তাদের সমস্যার সম্মুখীন করেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষকের বিচারের দাবিতে স্কুল চত্বরে একাধিকবার বিক্ষোভ করেছে তারা।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক রাকিবুল হাসান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কম্পিউটারে কম্পোজ করে পাঠানোর সময় ভুলে অন্য স্কুলের নামে চলে গেছে। এখানে আমি ইচ্ছাকৃতভাবে কিছু করিনি।

প্রভাকরদী হাজী ছখিউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ জানান, আমাদের স্কুলের শিক্ষার্থীর সংখ্যা কম থাকায় শিক্ষার্থী বাড়ানোর জন্য বোয়ালিয়া নিজামউদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয়ের ১২ শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন আমাদের বিদ্যালয় থেকে করা হয়েছে। তারা কখনো আমাদের স্কুলে ক্লাস করেনি। তারা ওই স্কুলেই ক্লাস করেছে সার্টিফিকেট আমার স্কুলের নামে বোর্ড থেকেই হয়েছে এখানে কোনো ভুল হয়নি।

বোয়ালিয়া নেজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. কাজী ফিরোজ জানান, স্কুলে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছে আমি শুনেছি। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে মুকসুদপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. শাহাদৎ হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান কাবির মিয়া জানান, তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ