• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

দৈনিক গোপালগঞ্জ

গোপালগঞ্জে মসজিদের ইমাম হত্যায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০২২  

গোপালগঞ্জে মসজিদের ইমাম ওয়াদুদ খান ওরফে জিন্নাত খান হত্যা মামলায় তিন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং অপর দুই আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে।

মামলার অপর ১২ আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। বুধবার(১০ আগষ্ট) দুপুরে আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন গোপালগঞ্জ অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্বাস উদ্দীন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারী ইউনিয়নের চাওচা পূর্বপাড়া গ্রামে ২০১৬ সালের ৮ জুলাই সকালে ওয়াদুদ খান ওরফে জিন্নাত খান তার বাড়ির পাশের পুকুরে মাছ ধরছিলেন। একই গ্রামের আসামিরা পুকুরের মালিকানা দাবি করে মাছ শিকারে বাধা দেয়। এ সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া হলে আসামিরা তাঁকে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। সংকটজনক অবস্থায় তাঁকে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ওয়াদুদ খান চাওচা পূর্বপাড়া জামে মসজিদের ইমাম ছিলেন।

এ ঘটনার পর নিহতের ছেলে মো. আলীম খান বাদী হয়ে ১৭ জনকে আসামি করে মুকসুদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। দীর্ঘ শুনানির পর আজ দুপুরে ওই মামলার আসামি হায়দার মোল্যা (৬২) ইউনুস মোল্যা (৩৫) ও হিটলার মোল্যাকে (৩২) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। অপর আসামি আক্তার মোল্যাকে (২৭) এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং সাগর মোল্যাকে (৩০) ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন করেন বিচারক।

বাদীপক্ষের মামলা পরিচালনা করেন এপিপি অ্যাডভোকেট মো. শহিদুজ্জামান খান এবং আসামি পক্ষের মামলা পরিচালনা অ্যাডভোকেট ফজলুল হক খান খোকন ও মো. আবু তালেব শেখ।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ