• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৯

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

দৈনিক গোপালগঞ্জ

পদ্মা সেতু উদ্বোধন ঘিরে নেওয়া হচ্ছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২২  

পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ কাজ শেষ। এখন চলছে শেষ সময়ের প্রস্তুতি। বহুল প্রতীক্ষিত স্বপ্নের পদ্মাসেতু আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতিমধ্যে  পদ্মা সেতু উদ্বোধন ও জনসভাকে কেন্দ্র করে পদ্মাপাড়ে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কেউ যাতে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য পুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা নজরদারির পাশাপাশি খোলা হবে পুলিশের কন্ট্রোল রুম। একইসঙ্গে পদ্মা সেতু উদ্বোধন ও জনসভা সফল করতে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে।

আজ সোমবার (২০ জুন) বিকেলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভার এই সিদ্ধান্তগুলো লিখিতভাবে গণমাধ্যমকে জানান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফ আহমুদ। তিনি বলেন, সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মন্ত্রিসভার সদস্য, বিশিষ্ট রাজনীতিক, কুটনীতিকদের অনুষ্ঠানে প্রবেশ ও অবস্থানকালে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। পদ্মা সেতুর মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে বিভিন্ন অনুষ্ঠানস্থল ও এর আশপাশের এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে সব আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পারস্পারিক সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করবে। পদ্মা সেতু সংলগ্ন পদ্মা নদী ও পার্শ্ববর্তী এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, পদ্মা সেতুর দক্ষিণ প্রান্তে শরীয়তপুরের জাজিরায় স্থাপন করা হয়েছে পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানা ও মুন্সিগঞ্জ জেলার মাওয়া প্রান্তে স্থাপন করা হয়েছে পদ্মা সেতু উত্তর থানা। আগামী মঙ্গলবার (২১ জুন) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থানা দুটি উদ্বোধন করবেন। দুই প্রান্তে নিরাপত্তা স্থাপনের জন্য পুলিশ কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হবে। নৌ দুর্ঘটনা রোধে অনুষ্ঠান স্থলের চারপাশ দিয়ে পদ্মায় চলাচল করা নৌযান যেন ওভারলোড না নিয়ে চলে। অনুষ্ঠান স্থলে পদ্মা নদীতে নৌ পুলিশ-ফায়ার সার্ভিসের রেসকিউটিম থাকবে। এছাড়া সভায় আরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে আসা ও যাওয়ার পথে ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ এবং অতিথিদের গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রাখা। নাশকতা এড়াতে গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো। এ সময় পুলিশের পাশাপাশি পর্যাপ্ত সেচ্ছাসেবী রাখা। জরুরি প্রয়োজনে পানি, স্বাস্থ্যসেবা দিতে অ্যাম্বুলেন্স ও মোবাইল টয়লেটের ব্যবস্থা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এছাড়া উদ্ভোধনের  আয়োজনকে ঘিরে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেন। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু আগামী ২৫ জুন উদ্বোধন হবে। এ উদ্বোধনকে ঘিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতেই এ সভা। সেতুর দুই পাড়ে ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছে। সে আয়োজনকে ঘিরে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠকে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ, সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, শরীয়তপুর, মুন্সিগঞ্জসহ পদ্মা সেতুর আশপাশের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের নেতা, সিনিয়র সচিব, সেতু বিভাগের কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা, গোয়েন্দা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বৈঠকে অংশ নেন।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ