• বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ১০ ১৪৩১

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৬

দৈনিক গোপালগঞ্জ

এশিয়ার দেশগুলোকে এক হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

দৈনিক গোপালগঞ্জ

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

এশিয়ার মধ্যে বসবাসকারী মানুষের প্রধান শত্রু দারিদ্র্য। তাই এ অঞ্চল থেকে দারিদ্র্য দূর করতে এশিয়ার দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা চালানোর আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (০৬ জুন) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ ভবন কার‌্যালয়ে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল মনোজ পাণ্ডে (Manoj Pande)। এ সময় প্রধানমন্ত্রী দারিদ্র্য নিরসনে এ অঞ্চলের দেশগুলোকে এক সঙ্গে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

পরে প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বিষয়টি ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দারিদ্র্য এ অঞ্চলের দেশগুলোর প্রধান শত্রু। এই দারিদ্র্য নির্মূলে এ অঞ্চলের দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্কে কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চমৎকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আছে। সেখানে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে দুই দেশের এই সুসম্পর্ককে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বাংলাদেশকে অধিক ঘনবসতির দেশ হিসেবে উল্লেখ করে করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সীমিত সম্পদ ও বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও সরকার দেশকে আর্থ-সামাজিকভাবে এগিয়ে নিতে আপ্রাণ চেষ্টা করছে।

এছাড়া দুই প্রতিবেশী দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সমন্বয় ও সহযোগিতা জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) এর কথা উল্লেখ করে বলেন, পারস্পরিক কল্যাণে দুই দেশের মধ্যে এক সঙ্গে কাজ ও সহযোগিতার সুযোগ আছে।

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকার, সেনাবাহিনী ও জনগণের সমর্থন ও ভূমিকার কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

সাক্ষাতকালে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রধান মনোজ পাণ্ডে বলেন, প্রতিরক্ষা খাতে বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে সহযোগিতা খুব ভালোভাবে এগিয়ে চলছে। আগামী দিনেও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আধুনিকায়নে সহযোগিতা অব্যহত থাকবে। দুই বন্ধুপ্রতিম দেশের মধ্যে কারিগরি ও অন্যান্য ক্ষেত্রে সহযোগিতা আরও জোরদার করার সম্ভবনা আছে বলেও জানান তিনি।

পারস্পরিক সুবিধার জন্য সম্ভবনাগুলোকে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন জেনারেল পাণ্ডে।

এ সফরে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি পরিদর্শন এবং সেখানকার আধুনিক সুযোগ-সুবিধা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন ভারতীয় সেনাপ্রধান।

সাক্ষাতের সময় অন্যান্যদের মধ্যে সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন, অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এসএস শফিউদ্দিন আহমেদের আমন্ত্রণে দুই দিনের সরকারি সফরে গতকাল ঢাকায় আসেন জেনারেল মনোজ পাণ্ডে।

দৈনিক গোপালগঞ্জ
দৈনিক গোপালগঞ্জ